একুশে বইমেলার পর্দা নামছে আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৭ মার্চ ২০২২, ১৩:৪০ | প্রকাশিত : ১৭ মার্চ ২০২২, ১২:৫৯

মহামারি করোনার প্রকোপের কারণে ১৫ দিন পিছিয়ে শুরু হওয়া অমর একুশে বইমেলার পর্দা নামছে আজ। প্রাথমিকভাবে মেলা ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে বলা হলেও করোনা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হওয়ায় টানা সময়সীমা ১৭ মার্চ পর্যন্ত বাড়ানো হয়। পুরো এক মাস চলার পর আজ ভাঙছে বাঙালির প্রাণের মেলা।

প্রতিবছর ১ ফেব্রুয়ারি বইমেলা শুরু হলেও করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় এবারের মেলা শুরু হয়েছে ১৫ ফেব্রুয়ারি। ওইদিন বিকেলে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে বইমেলার উদ্বোধন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এবছর বইমেলা দেরিতে শুরু করতে হলো। প্রস্তুতি ছিল, কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দিল। যে কারণে দেরি করে শুরু করতে হলো।’

‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী’ প্রতিপাদ্য নিয়ে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ এবং ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের প্রায় সাড়ে সাত লাখ বর্গফুট জায়গায় বইমেলা অনুষ্ঠিত হয় । মেলায় মোট ৩৫টি প্যাভিলিয়নসহ একাডেমি প্রাঙ্গণে ১০২টি প্রতিষ্ঠানকে ১৪২টি এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ৪৩২টি প্রতিষ্ঠানকে ৬৩৪টি ইউনিট- মোট ৫৩৪টি প্রতিষ্ঠানকে ৭৭৬টি ইউনিট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে এবারের মেলায়।

দেশে করোনা পরিস্থিতি প্রায় সাড়ে তিন মাস নিয়ন্ত্রণে থাকার পর গত ডিসেম্বরের শেষ দিক থেকে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করে। করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের প্রভাবে শনাক্তের সংখ্যা ও হার দ্রুত বাড়তে থাকে। ১৭ জানুয়ারি থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দৈনিক শনাক্তের হার ২০ শতাংশের বেশি ছিল। ফলে বইমেলা পিছিয়ে দেয় সরকার। শুরু হয় ১৫ ফেব্রুয়ারি। সেসময় বলা হয়েছিল করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হলে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মেলা চলবে। তবে, বইমেলা চলাকালে বেশ কিছুদিন শনাক্তের হার নেমে আসে পাঁচ শতাংশের নিচে। করোনা পরিস্থিতির এ উন্নতির মধ্যে প্রকাশকরা ১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকীর দিন পর্যন্ত বাড়ানোর আবেদন করেন। এর পর মেলার সময় বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়।

সময় বাড়ানোর সময় সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছিলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ১৭ মার্চ, তাই ১৭ মার্চ পর্যন্ত বইমেলা চালু রাখা হয়েছে। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় থেকে ১৭ মার্চ পর্যন্ত বইমেলা চালিয়ে যাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বরাবর চিঠি দেয়া হয়েছিল সেটা তিনি গ্রহণ করেছেন এবং সম্মতি দিয়েছেন।’

(ঢাকাটাইমস/১৭মার্চ/কেআর/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভাষা ও সাহিত্য এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :