দুই প্রেমিকাকে একসঙ্গে বিয়ে: ২২ দিনের মাথায় যা ঘটল

পঞ্চগড় প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ মে ২০২২, ১১:৪৯ | প্রকাশিত : ১৬ মে ২০২২, ১০:৩০

পরিবারের মত নিয়ে দুই প্রেমিকাকে একসঙ্গে বিয়ে করেছিলেন রোহিনী চন্দ্র বর্মণ রনি। বিয়ের পর থেকেই ‘ত্রিভূজ’ সংসারে শুরু হয় অশান্তি। অবশেষে ২২ দিনের মাথায় এক স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ হলো।

১২ মে স্ত্রী মমতার সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ করেন রনি। অন্য স্ত্রী ইতি রানিকে নিয়েই সংসার করতে চান তিনি। মমতার পরিবারের অভিযোগ, তাদের মেয়ের ওপর মানসিক এবং শারীরিক অত্যাচার করা হয়েছে। যদিও এই বিষয়ে রনি এবং মমতার কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ছোট বউ মমতা রানি নিজেই রোহিনী চন্দ্র বর্মণকে ডিভোর্স দেন। মমতা রানির পরিবারের ইচ্ছাতেই এই ডিভোর্স সম্পন্ন হয়।

পঞ্চগড়ের আটোয়ারি উপজেলার বলরামপুর ইউনিয়নের লক্ষ্মীদার এলাকার বাসিন্দা রনি উত্তর বলরামপুর এলাকার বাসিন্দা ইতি রানির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। প্রায় ছয় মাস আগে মন্দিরে গিয়ে তারা বিয়েও করেন। এরপর উত্তর লক্ষ্মীদ্বার এলাকায় মমতা নামে আরও একজনের সঙ্গে প্রেম চলে আসছিল রনির। একদিন তিনি মমতার সঙ্গে দেখা করতে গেলে পরিবারের লোকজন রনিকে আটকে রাখে। মমতার সঙ্গে তার বিয়ের তোড়জোড় শুরু করে। এরপর প্রথম প্রেমিকা ইতি রানিও রনির বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করেন। শেষে পরিবারের মতে, ইতি রানি এবং মমতাকে বিয়ে করেন রনি।

(ঢাকাটাইমস/১৬মে/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :