লালমনিরহাটে বিয়ের বাড়ির চা খেয়ে ১২ জন হাসপাতালে

লালমনিরহাট প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর ২০২২, ২০:০৫

লালমনিরহাটের পাটগ্রামের শ্রীরামপুরে বিয়ের বাড়িতে চা খেয়ে ১২ জন গুরুতর অসুস্থ হয়েছেন। পরে তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে গুরুতর অসুস্থ পাঁচজনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় পাটগ্রাম উপজেলার শ্রীরামপুর এলাকায় এক বিয়ের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

পাটগ্রাম থানার ওসি ওমর ফারুক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, পাটগ্রাম উপজেলার কুচলীবাড়ি ইউনিয়নের শ্রীরামপুর এলাকার রফিকুল ইসলামের মেয়ের সাথে একই উপজেলার পানবাড়ি এলাকার আ. ছালামের ছেলে রিপন আলীর সাথে বিবাহের দিন তারিখ ঠিক হয়। সন্ধ্যায় বর পক্ষ আসবে এ নিয়ে দিনভর চলে রান্নার কাজ। কিন্তু রান্নার কাজ শেষে একটু চাঙ্গা হতে চা চক্রের আয়োজন করা হয়। সেই চা খাওয়া শেষে মেয়ে পক্ষের ১২ জন গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। এ সময় তাদের দ্রুত পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ সময় পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য স্থানান্তর করা হয়।

পাটগ্রাম থানার ওসি ওমর ফারুক ঢাকা টাইমসকে বলেন, আমি খবর শুনে পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রোগীদের দেখতে যাই। এ সময় জানতে পেরেছি- বর পক্ষের লোকজন রাতে আসবে বিয়ের বাড়িতে। এ নিয়ে রান্নার কাজ শেষে চা খাওয়ার আয়োজন করে কন্যা পক্ষ। কিন্তু চায়ের কেটলিতে চা পাতার দানা না দিয়ে চায়ের মতই দেখতে পাশেই রক্ষিত ভুট্টার ক্ষেতে দেয়া বিষাক্ত ওষুধ চায়ের কেটলিতে দেয়। সেই চা খেয়ে মেয়ে পক্ষের ১২ জন গুরুতর অসুস্থ হয়। এর মধ্যে কয়েকজনের আশঙ্কাজনক হলে পাঁচজনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/২৬নভেম্বর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :