ঠাকুরগাঁওয়ে দেশের সর্ববৃহৎ সমলয় পদ্ধতিতে বোরো চাষ

জুনাইদ কবির, ঠাকুরগাঁও
 | প্রকাশিত : ১৩ মে ২০২৩, ১৭:২৪

দেশের উত্তরের জেলা ঠাকুরগাঁও শিল্পায়নে অনুন্নত হলেও কৃষিতে স্বনির্ভর। এ জেলায় উল্লেখযোগ্য তেমন কোনো শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে না উঠলেও এখানকার কৃষির মান ও উৎপাদনের হারের কারণে অন্যান্য জেলাগুলোর তুলনায় সহজেই আলাদা করা যায় ঠাকুরগাঁওকে। কৃষি নির্ভর হওয়ায় তাই এ জেলার কৃষিতে প্রতিনিয়ত আসছে যুগোপযোগী নানা পরিবর্তন। দেশের বিভিন্ন জেলায় এ সমলয় পদ্ধতিতে পরীক্ষামূলক চাষাবাদ করা হলেও দেশের সর্ববৃহৎ সমলয় পদ্ধতিতে বোরো চাষ হচ্ছে ঠাকুরগাঁওয়ে। কৃষি বিভাগের সহযোগিতায় জেলার রাণীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ গ্রামের ৭ জন কৃষকের ১১০ একর জমিতে সমলয় পদ্ধতিতে চাষ করা হচ্ছে বোর ধান। কৃষিতে যান্ত্রিকীকরণ, কম সময়ে, কম খরচে অধিক উৎপাদন ও শ্রমিক সংকট নিরসনের লক্ষ্যে এ পদ্ধতিতে চাষাবাদে সুফল পেতে শুরু করেছেন কৃষকরা।

এছাড়াও ফসল কাটার সময় শ্রমিক সংকট এখন বাংলাদেশে নিত্যবছরের সমস্যা। শিল্পায়নের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ প্রভাবে কয়েক দশক ধরে মানুষ শহরমুখী। তাই প্রতিনিয়ত কমছে কৃষি শ্রমিক। সামনে এ সংকট আরও বাড়বে। এর একটা সমাধান হতে পারে কৃষি যান্ত্রিকীকরণ ও সমলয় চায়। বর্তমান সরকার কৃষিকে আধুনিক ও লাভজনক করতে টেকসই যান্ত্রিকীকরণের বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। যার একটি হচ্ছে সমবায়ভিত্তিক সমলয় চাষাবাদ পদ্ধতি।

অপরদিকে কৃষকরা অভিযোগ করেন যে ধান চাষ লাভজনক নয়। এটিকে লাভজনক করার অন্যতম উপায় হলো উৎপাদন ব্যয় হ্রাস করা। আর উৎপাদন ব্যয় হ্রাস করতে হলে বিকল্প নেই সমলয় চাষের । চারা উৎপাদন থেকে কর্তন পর্যন্ত ফসল উৎপাদনের প্রতিটি পদক্ষেপেই রয়েছে মেশিনের ব্যবহার। সিড সোইং মেশিনের সাহায্যে ট্রেতে ধানের বীজের মাধ্যমে চারা উৎপাদন করা হয়। এরপর রাইস ট্রান্স প্লান্টার মেশিনের সাহায্যে সেই চারা জমিতে বপন করা হয। এতে সনাতন পদ্ধতিতে একর প্রতি খরচ হতো ২০০০ থেকে ২২০০ টাকা। মেশিনের মাধ্যমে চারা রোপন করায় খরচ হচ্ছে আর ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা। জমিতে সেচের মাত্রা পরিমাপের জন্য লাগানো হয়েছে ইউ ডি পাইপ। এতে পাঁচটি সেচের খরচ কমেছে বলে জানান কৃষক। এই পদ্ধতিতে ধান কাটা হবে কম্বাইন্ড হারভেস্টার মেশিনের মাধ্যমে যেখানে কর্তন ও মারাই একই সাথে করা হবে।

সমলয় পদ্ধতিতে ধান চাষের পাশাপাশি জমির আইলে লাগানো হয়েছে লাউ, ঝিঙ্গা ও কুমড়ার গাছ। এতে পূরণ হোচ্ছে পারিবারিক সবজির পুষ্টি চাহিদাও। সমলয় পদ্ধতিতে চাষাবাদের ফলে একই জমিতে বোরো আউশ আমন তিনটি ফসল উৎপাদন করা যাচ্ছে ফলে খাদ্যশস্যের উৎপাদন বাড়ার পাশাপাশি বাড়ছে কৃষি জমির নিবিরতা । ফসলের পোকামাকড়ের উপদ্রব কম হওয়ায় কমছে কীটনাশক খরচ।

সমলয় পদ্ধতিতে চাষ করা কৃষক অখলাক হোসেন, মজিবর রহমান, মাহফুজুর রহমান জানান, আমরা আগে এ পদ্ধতি সম্পর্কে কিছুই জানতামনা। আমরা যে যার মতো আলাদাভাবে চাষাবাদ করতাম। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার মাধ্যমে আমরা এ পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে পেরে আগ্রহ প্রকাশ করি। সমলয় পদ্ধতিতে চাষ করে একদিকে আমাদের যেমন কৃষি শ্রমিকের সংকট নিরশন সহ সেচ খরচ কমেছে , অন্যদিকে আমরা একই সময়ে ফসল ঘরে তুলতে পারবো এবং উৎপাদনও অন্যান্য মৌসুমের তুলনায় বেশি হবে আশা করছি। ফলে দামও পাবো ভালো। এছাড়াও এ পদ্ধতিতে আমরা ফসলের মাঠের আইলে লাউ, ঝিঙা, কুমড়া সহ নানা বাড়তি ফসল ও সবজির চাষ করে একটা বাড়তি আয়েরও ব্যবস্থা হয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিস থেকেও আমরা সার ও বীজে ভালো ধরনের সহযোগীতা পেয়েছি।

রানীসংকৈল উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সঞ্জয় দেবনাথ জানান,কৃষিতে যান্ত্রিকিকরন ও কম সময়ে অল্প করচে অতিরিক্ত খাদ্য উৎপাদনের লক্ষ্যে সরকার যে প্রোজেক্ট গ্রহণ করেছে তাতে আমাদের এ প্রচেষ্টা একটা বড় ভ’মিকা রাখবে বলে অঅমি মনে করি। কারন আমাদের এটিই দেশের সর্ববৃহৎ সমলয় পদ্ধতিতে চাষের মাঠ। বর্তমান সরকার কৃষিকাজে যন্ত্রের ব্যবহার বাড়িয়ে কৃষিকে আধুনিক ও লাভজনক করতে নিরলস কাজ করছে। কৃষি যান্ত্রিকীকরণে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে নেয়া হয়েছে নানা প্রকল্প। পাশাপাশি কৃষি যান্ত্রিকীকরণ ত্বরান্বিত করতে দক্ষ জনবল তৈরিতে এরই মধ্যে মাঠপর্যায়ে কৃষি প্রকৌশলীর ২৮৪টি পদ সৃজন করা হয়েছে। ফলে আমাদের কৃষি যান্ত্রিকীকরণের দিকেই যাচ্ছে। ‘সমলয়’ পদ্ধতিতে চাষ করলে যন্ত্রের ব্যবহার সহজতর হবে। কৃষকের সময়, শ্রম ও খরচ কমবে। কৃষক লাভবান হবেন। এতে বাঁচবে কৃষক,বাঁচবে দেশ।

(ঢাকাটাইমস/১৩মে/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

বাংলাদেশ এর সর্বশেষ

টাঙ্গাইলে পাইলিংবাহী গাড়িতে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কা, নিহত ২

বাবার লাশের এক টুকরো মাংস আমাকে দাও: আনার কন্যা ডরিন

ফ্যাসিবাদী দুঃশাসন দেশকে মাফিয়া দুর্বৃত্তদের অভয়ারণ্য করেছে: গণতন্ত্র মঞ্চ

প্রতিশ্রুতি রাখেননি জনপ্রতিনিধিরা, রাস্তা বানাচ্ছেন গ্রামবাসী

ফরিদপুরে সেপটিক ট্যাংক থেকে ৪০ হাজার ডলার উদ্ধার

উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন, আড়াই শতাধিক ঘর-দোকান পুড়ে ছাই

স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে হলে, জুডিশিয়ালিকেও স্মার্ট করতে হবে: প্রধান বিচারপতি

কুষ্টিয়ায় বালুবোঝাই ট্রলি চাপায় বৃদ্ধা নিহত

প্রধানমন্ত্রী আশ্বস্ত করেছেন বাবা হত্যার বিচার করবেন: আনারের মেয়ে ডরিন

ফরিদপুরে রিকশা গ্যারেজে বারুদের বিস্ফোরণে যুবক আহত

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :