পঞ্চগড়ে পৃথক স্থানে শিশুসহ ৩ জনের মৃত্যু

পঞ্চগড় প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২১ জুলাই ২০২৩, ২২:২১ | প্রকাশিত : ২১ জুলাই ২০২৩, ২২:০৭

পঞ্চগড়ে পৃথক ঘটনায় শিশুসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত জেলার শহরের ধাক্কামারা ইউনিয়ন, তেঁতুলিয়া উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়ন ও পঞ্চগড় সদরের হাড়িভাসা ইউনিয়নে এ দুর্ঘটনাগুলো ঘটে।

নিহতরা হলেন- ধাক্কামারা ইউনিয়নের গাইঘাটা এলাকার কাশেম আলীর ছেলে রোকনুজ্জামান রোকন (৭), বোদা উপজেলার বেংহারী বনগ্রাম ইউনিয়নের টিভারপাড়া এলাকার মৃত দেলোয়ার হোসেনের ছেলে নুর ইসলাম (৩২) ও হাড়িভাসা ইউনিয়নের খালপাড়া গ্রামের হামিদুল ইসলামের স্ত্রী নারগিস আক্তার (৪৫)।

পুলিশ ও নিহতদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার জুমআর নামাজের আগে ধাক্কারায় রোকন তার বাবা ও দাদার সঙ্গে বাড়ির পাশের একটি পুকুরে পাট জাগ দিতে যায়। পরে তাকে পুকুরের ধারে রেখে তার বাবা ও দাদা পাট জাগ দিতে পুকুরে নামেন। এ সময় হঠাৎ সে তাদের অগোচরে পুকুরে নামলে গভীর পানিতে তলিয়ে যায়। পরে তার বাবা ও দাদা রোকনকে না পেয়ে পুকুরের পানিতে খোঁজাখুঁজি করেন। পরে তাকে পুকুর থেকে ডুবন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রোকনকে মৃত ঘোষণা করেন।

অপরদিকে একইদিন সকালে ঠাকুরগাঁও জেলার রুহিয়া থানার সুবল চন্দ্র রায় সস্ত্রীক ব্যক্তিগত কাজে পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে যাচ্ছিলেন। তাদের এগিয়ে দিতে সিএনজি করে যান সুবলের শ্বশুর দেবীচরণ চন্দ্র বর্মন ও তার বন্ধু অজিত চন্দ্র রায়। পরে সেখান থেকে একই সিএনজিতে ফেরার পথে বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের মান্দুলপাড়া (ডাহুক সেতু সংলগ্ন) এলাকায় পৌঁছালে তেতুঁলিয়াগামী একটি কাভার্ডভ্যান তাদের ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজি চালকসহ তিনজন গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় সিএনজি চালক নুর ইসলাম ও সিএনজির যাত্রী অজিতকে উদ্ধার করে তেতুঁলিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সিএনজিচালক নুর ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে নারগিস বাড়ির পাশের পাট ক্ষেতে কাজ করতেছিলেন। এ সময় হঠাৎ বৃষ্টিসহ বজ্রপাত হলে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। পরে স্থানীয়রা সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পঞ্চগড় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ মিঞা, তেঁতুলিয়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসেন ও হাড়িভাসা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইয়েদ নূর-ই-আলম পৃথক স্থানে তিনজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

(ঢাকাটাইমস/২১জুলাই/এসএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

বাংলাদেশ এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :