কোটাবিরোধী আন্দোলনের প্রভাব: মেট্রোরেল স্টেশনে উপচেপড়া ভিড়

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১০ জুলাই ২০২৪, ১৩:১৭

সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের দাবিতে ঢাকাসহ সারাদেশে শিক্ষার্থীদের ‘বাংলা ব্লকেড’ নামে কোটাবিরোধী আন্দোলন চলছে। বুধবার সকাল থেকেই রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টসহ বিভিন্ন এলাকার সড়ক বন্ধ করে জড়ো হতে দেখা গেছে শিক্ষার্থীদের।

বেশকিছু এলাকায় কোটাবিরোধী স্লোগান নিয়ে মিছিল বের হতেও দেখা গেছে।

শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন সড়ক অবরুদ্ধ করে আন্দোলন করায় ইতোমধ্যে রাজধানীর বেশিরভাগ এলাকায় গণপরিবহনের সংকট দেখা দিয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাজধানীর শাহবাগ, কারওয়ানবাজার, ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেল মোড়, ফার্মগেট, চানখাঁরপুল মোড়, চানখাঁরপুল ফ্লাইওভারে ওঠার মোড়, বঙ্গবাজার, শিক্ষা ভবন চত্বর, মৎস্য ভবন, জিপিও, সায়েন্সল্যাব, নীলক্ষেত, রামপুরা ব্রিজ, মহাখালী, বাংলামোটর, আগারগাঁও এলাকায় সকাল থেকেই জড়ো হতে থাকেন শিক্ষার্থীরা। এসব এলাকার অধিকাংশ সড়কই বন্ধ করে দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে নগরবাসী।

এদিকে কোটাবিরোধী আন্দোলনের প্রভাবে মেট্রোরেল স্টেশনগুলোতে বেড়েছে যাত্রীদের চাপ। বিভিন্ন স্টেশনে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে।

বেলা ১১টায় বাংলাদেশ সচিবালয় স্টেশনে গিয়ে টিকিট সংগ্রহের জন্য যাত্রীদের দীর্ঘ সারি দেখা যায়। এছাড়াও মেট্রোরেলের ভিতরেও অতিরিক্ত যাত্রী উঠতে দেখা গেছে।

বেলা সাড়ে ১১টায় সচিবালয় এলাকা থেকে আগারগাঁও এলাকায় চিকিৎসা নিতে যাচ্ছিলেন মো. সোয়েব। তিনি ঢাকা টাইমসকে বলেন, “মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার দিয়ে যাত্রাবাড়ী থেকে গুলিস্তান আসতে সময় লেগেছে দেড় ঘণ্টা।”

এরপর মেট্রোরেলে করে আগারগাঁও যেতে টিকিট কেটেছেন তিনি। তবে ট্রেন এলেও ভিড়ের জন্য উঠতে পারেননি। তাই পরের ট্রেনে যাচ্ছেন বলে জানান।

দুপুর সাড়ে ১২টায় আগারগাঁও স্টেশনে গিয়ে দেখা যায়, টিকিট বিক্রির জন্য সেখানে ৩টি ইলেকট্রনিক মেশিন সচল রয়েছে। তবে প্রতিটি মেশিন থেকে টিকিট কিনতে আসা যাত্রীদের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে। কারো কারো টিকিট কিনতে সময় লেগেছে প্রায় ১ ঘণ্টা।

এছাড়া স্টেশনে প্রবেশ ও বহিরাগমন পথেও ভিড় দেখা গেছে।

আগারগাঁও স্টেশনের সোনিয়া নামের এক যাত্রী ঢাকা টাইমসকে বলেন, “দেড় ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে দুইটা টিকিট কিনতে পেরেছি। ১২টার দিকে শাহাবাগ থাকার কথা ছিল। তবে এখনো (সাড়ে ১২টা) মেট্রোরেলেই উঠতে পারিনি।”

রিয়াজ নামের আরেক যাত্রী ঢাকা টাইমসকে বলেন, “রাস্তায় কোনো গণপরিবহন না থাকায় আমাদের একমাত্র ভরসা এখন মেট্রোরেল। ভিড়ে বের হলেও এই মেট্রোরেল দিয়েই যেতে হচ্ছে।”

দেশের সব সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থীরা ‘বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন’ এর ব্যানারে ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি পালন করছে।

বুধবার সকাল ১০টা থেকে নগরীর বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে কোটাবিরোধী এই আন্দোলন শুরু হয়।

(ঢাকাটাইমস/১০জুলাই/এইচএম/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

মধ্যরাতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে স্লোগান, বিক্ষোভ

মধ্যরাতে যে কারণে স্লোগানে স্লোগানে উত্তাল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়

দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কঠোর বার্তা— ‘আপন-পর কাউকে ছাড় নয়’

সোনার দামে রেকর্ড, ভরি ১ লাখ ২০ হাজার ছাড়াল

আন্দোলনে সংঘাত এড়াতে পুলিশ সর্বোচ্চ ধৈর্য ধরেছে: বিপ্লব

তবে কি চাটখিলের জাহাঙ্গীরকে ইঙ্গিত করলেন প্রধানমন্ত্রী?

ডোনাল্ড ট্রাম্পের ওপর হামলার নিন্দা প্রধানমন্ত্রীর

ইউরোপের চার দেশ তিন হাজার বাংলাদেশি কর্মী নেবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কোটা নিয়ে আদালতে সমাধান না হওয়া পর্যন্ত সরকারের কিছু করার নেই: প্রধানমন্ত্রী

কোটা আন্দোলন: ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সংসদে জরুরি অধিবেশন চায় শিক্ষার্থীরা

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :