বইমেলায় ডিজিটাল শ্রেণিশিক্ষক

আল আমিন রাজু, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:৪২

শিক্ষার্থীদের পাঠদানের জন্য শ্রেণিকক্ষে শিক্ষকদের এখন আর উচ্চস্বরে পড়িয়ে ক্লান্ত হতে হবে না। অমনোযোগী শিক্ষার্থীদের নিয়ে চিন্তা করতে হবে না তাদের। কারণ শিক্ষকদের সহায়তার জন্য এসেছে ডিজিটাল শ্রেণিশিক্ষক টিচার।

প্লে, নার্সারি ও কেজি শ্রেণির সব বই শিক্ষকদের জন্য ক্লাস নেওয়ার উপযোগী করে তোলা হয়েছে। শিক্ষক এখন চাইলে মুখে উচ্চস্বরে কিছু না বলে একটি শব্দ একাধিকবার পড়াতে পারবেন। বরং ডিজিটাল স্পিকারের সাহায্যে পুরো শ্রেণিকক্ষে পড়া বুঝিয়ে দিতে পারবেন।

বাংলা, ইংরেজি, গণিত এবং আরবি- এই চার বিষয়ে প্লে থেকে কেজি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের পড়ানো যাবে এর মাধ্যমে।

শিক্ষকদের জন্য এই শিক্ষাদান পদ্ধতি ডিজিটাল ক্যালেন্ডার (বোর্ড) নিয়ে এসেছে ডিজিটাল পাবলিকেশন লিমিটেড। বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে ডিজিটাল পাবলিকেশনের স্টলে গিয়ে দেখা যায়, দশনার্থীরা ডিজিটাল শ্রেণিশিক্ষক সিস্টেমটি সম্পর্কে জেনে নিচ্ছেন স্টলকর্মীদের কাছ থেকে।

ডিজিটাল পাবলিকেশনের বিপণন কর্মকর্তা আমির হামজা ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘ডিজিটাল শ্রেণিশিক্ষক বোর্ডটি স্কুলের শিক্ষকদের কষ্ট কমিয়ে দেবে। পাশাপাশি শ্রেণিকক্ষে শিক্ষাদানের ক্ষেত্রে প্রজেক্টরের ঝামেলা থেকে মুক্তি দেবে। একজন শিক্ষক সহজেই পাঠদান করতে পারবেন।

সহজে বহনযোগ্য এই ডিজিটাল শিক্ষক দিয়ে টানা ৮ ঘণ্টা ক্লাস নেওয়া যাবে। এ ছাড়া রিচার্জেবল হওয়ায় এর স্পিকার এবং কলম চার্জ করে আবার পরবর্তী শিক্ষাদান কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবেন।

ডিজিটাল শ্রেণিশিক্ষক বোর্ডটির দাম পড়বে ১৬ হাজার টাকা্। প্রতি সেট বই কেনা যাবে ২৫০০ টাকায়।

(ঢাকাটাইমস/২৪ফেব্রুয়ারি/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :