ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ, হাসপাতাল ভাঙচুর

নিজস্ব প্রতিবেদক, লক্ষ্মীপুর
| আপডেট : ২৩ জুলাই ২০১৯, ১২:৪১ | প্রকাশিত : ২৩ জুলাই ২০১৯, ১২:৩৬

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মাতৃছায়া হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় আলী হায়দার নামে এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পর মৃতের স্বজনরা বিক্ষুব্ধ হয়ে হাসপাতালটি ভাঙচুর করেছে।

গত সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত হায়দার রায়পুর উপজেলার রাখালিয়া গ্রামের হাবিব উল্লাহর ছেলে ও স্থানীয় ৩ং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

পুলিশ ও নিহত রোগীর স্বজনরা জানায়,  গতকাল বিকাল তিনটার দিকে স্থানীয় মরকম আলী সর্দার বাড়ির সামনের দোকানে চা পান করছিলেন আলী হায়দার। এসময় হঠাৎ মাটিতে লুটে পড়েন তিনি। দ্রুত উদ্ধার করে রায়পুর মাতৃছায়া হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরে মাতৃছায়া হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন রোগীর ডায়রিয়া রোগ নির্ণয় করে চিকিৎসাপত্র দেন। একপর্যায়ে রোগীর অবস্থার অবনতি হলে তাকে চাঁদপুরে নিয়ে যাওয়ার জন্য পরামর্শ দেন চিকিৎসক। এর কিছু সময় পরই আলী হায়দারের মৃত হয়।

এ ঘটনায় নিহতের স্বজনরা রায়পুরের মাতৃছায়া হাসপাতালে ভাঙচুর চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

রোগীর স্বজন মো. হারুন জানান, স্ট্রোকের রোগীকে মাতৃছায়া হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক সাখাওয়াত ভুল চিকিৎসা দিয়ে ডায়রিয়ার রোগী হিসেবে চিকিৎসা দেয়। এতে আলী হায়দার মারা যায়। এ ঘটনায় চিকিৎসককে আসামি করে মামলা করবেন বলে জানান তিনি।

হাসপাতালের ব্যবস্থাপক মো. তুহিন চৌধুরী জানান, আলী হায়দার নামে এক ব্যক্তিকে ডায়রিয়া রোগী হিসেবে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে চাঁদপুরে পাঠানোর পরামর্শ দেওয়া হয়। এর কিছু সময় পর রোগী মারা যায়।

তিনি আরও বলেন, রোগীর মৃত্যুর পর রাতেই মাতৃছায়া হাসপাতালের চিকিৎসক সাখাওয়াত হোসেনকে খোঁজ করে ১০/১৫ জন রোগীর স্বজন। এ সময় তারা হাসপাতালটিতে ভাঙচুর চালায়। বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করলে তারা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোতা মিয়া জানান, ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ এনে স্বজনরা হাসপাতালে ভাঙচুর চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনার তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

ঢাকাটাইমস/২৩এপ্রিল/প্রতিনিধি/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :