তামিমের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে লড়াকু টার্গেট দিল ঢাকা

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২:২০ | প্রকাশিত : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১:০০

দীর্ঘ সময়ের পর বাইশ গজে ফিরে প্রথম ম্যাচটি যুতসই করতে পারেননি ঢাকা প্লাটুন ওপেনার তামিম ইকবাল। প্রথম ম্যাচে মাত্র ৫ রানে সাজঘরে ফিরলেও দ্বিতীয় ম্যাচে তার বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের উপর নির্ভর করেই কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের সামনে লড়াকু টার্গেট ছুড়ে দিল ঢাকা প্লাটুন।

চলমান বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ঢাকা প্লাটুনের দ্বিতীয় ম্যাচে তুলে নিলেন নিজের প্রথম অর্ধশতক। ৪০ বলে অর্ধশতক তোলা তামিম খেলেন ৭৪ রানের ঝড়ো ইনিংস। তার ব্যাটে চড়েই কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সকে ১৮১ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় ঢাকা প্লাটুন। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করা ঢাকা নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে তোলে ১৮০ রান।

শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হয় ঢাকা-কুমিল্লা। সন্ধ্যা ৭টায় মাঠে গড়ায় টুর্নামেন্টের ষষ্ঠ ম্যাচটি। যা সরাসরি দেখা যাচ্ছে গাজী টিভি ও মাছরাঙতে।

দুই দলের দ্বিতীয় ম্যাচে টস জিতে ঢাকাকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় কুমিল্লার অধিনায়ক দাসুন শানাকা। ব্যাট করতে নেমে কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই ইনিংসের প্রথম ওভারের প্রথম বলে মুজিব-উর রহমানের এলবির ফাঁদে পড়েন এনামুল হক বিজয়। বিজয়ের বিদায়ের পর মেহেদী হাসানের সঙ্গে ২৬ রানের জুটি গড়েন তামিম।

ব্যক্তিগত ১২ রানে রনির শিকার হয়ে ফিরেন মেহেদী। ওপর প্রান্তে দেয়াল হওয়ে দাঁড়িয়ে থাকা তামিম এবার জুটি গড়েন ইভান্সের সঙ্গে। দুই জনের জুটিতে আসে ৭৫ রান। ব্যক্তিগত ২৩ রানে ইভান্স কুমিল্লার অধিনায়কের শিকার হলেও লড়াই করে যান তামিম।

এবার লঙ্কান তারকা থিসারা পেরেরা সঙ্গে তুলেন চার ছক্কার ঝড়। তবে তামিমের সে ঝড় থামে দলীয় ১৪৯ রানে। শানাকার বলে বাউন্ডারি লাইনে সাব্বিরের হাতে ধরা পড়েন তামিম। ৫৩ বলে ৬ চার ৪ ছক্কায় খেলেন ৭৪ রানের ঝড়ো ইনিংস। পাকিস্তানি অলরাউন্ডার আফ্রিদি আউট হন ৪ রান করে আর ওয়াহাব রিয়াজ শূন্য রানে।

পাকিস্তানের এ দুই তারকা ব্যর্থ হলেও মাত্র ১৭ বলে ৪২ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন শ্রীলঙ্কার পেরেরা। তার অপরাজিত ইনিংসটি সাজার ৭ চার আর ১ ছক্কায়। শেষ বলে রান আউট হওয়ার পূর্বে ঢাকার কাপ্তান বিশাল ছক্কা মেরে খেলেন ৯ রানের ইনিংস।

কুমিল্লার পক্ষে অধিনায়ক দাসুন শানাকা ও সৌম্য সরকার দুইটি করে উইকেট শিকার করেন। আবু হায়দার রনি ও মুজিব-উর রহমান করেন একটি করে।

(ঢাকাটাইমস/১৩ ডিসেম্বর/এআইএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত