জামিন ও অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ দুই সপ্তাহ বাড়ল

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ০৪ এপ্রিল ২০২০, ১৮:১৮ | প্রকাশিত : ০৪ এপ্রিল ২০২০, ১৮:০৮

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) পরিস্থিতির কারণে আদালত বন্ধ থাকায় যেসব মামলায় আসামির জামিন ও অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে সেসব আদেশের কার্যকারিতা আদালত খোলার পর থেকে দুই সপ্তাহ পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এছাড়া বিশেষ আইনের মামলায় আদেশ ও রায়ের বিরুদ্ধে আদালত খোলার দিনই আপিল দায়ের করা যাবে।

শনিবার প্রধান বিচারপতি, আইনমন্ত্রী, আপিল বিভাগের বিচারপতিদের এক আলোচনার পর সুপ্রিম কের্ট প্রশাসন এমন সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।

বিষয়টা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন হাইকোর্ট বিভাগের স্পেশাল অফিসার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান।

এ বিষয়ে ‘জামিন অস্থায়ী/নিষেধাজ্ঞার আদেশ বর্ধিতকরণ এবং বিশেষ আইনের অধীনে আপিল দায়ের’ শীর্ষক এক নোটিশ জারি করেছেন সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর।

এতে বলা হয়, ‘উপযুক্ত বিষয়ে নির্দেশিত হয়ে জানানো যাচ্ছে যে, দেশব্যাপী করানো ভাইরাসের কারণে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত সব আদালতে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সংকটময় সময় বিবেচনা করে ইতোমধ্যে যেসব ফৌজদারি মামলায় আসামিকে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত জামিন দেওয়া হয়েছে, যেসব মামলায় উচ্চ আদালতে অধস্তন আদালতের নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আত্মসমর্পণের শর্তে জামিন দেওয়া হয়েছে, বা যেসব দেওয়ানী মামলায় নিদিষ্ট সময়ের জন্য অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা/স্থিতাবস্থার আদেশ দেওয়া হয়েছে, সেসব আদেশের কার্যকারিতা আদালত খোলার তারিখ থেকে দুই সপ্তাহ পর্যন্ত বর্ধিত হয়েছে মর্মে গণ্য হবে।‘

এছাড়া, সব বিশেষ আইনের আওতাধীন মামলার আদেশ/রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টসহ সব আদালত খোলার তারিখে আপিল দায়ের করতে হবে। এক্ষেত্রে রায়ের সহি মোহর নকল (সত্যায়িত অনুলিপি) না থাকলেও আপিল দায়ের করা যাবে। তবে আপিল শুনানির আগে সহি মোহর নকল অবশ্যই দাখিল করতে হবে।

নোটিশে আরও বলা হয়, দেশের প্রত্যেকটি জেলায় চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ও চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জরুরি মামলার জন্য এক বা একাধিক ম্যাজিস্ট্রেট কর্মরত আছেন।

ঢাকা টাইমস/৪ এপ্রিল/এআইএম/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :