পশ্চিমবঙ্গে মৃত বেড়ে ৮০, পুনর্বাসনে হাজার কোটি

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
| আপডেট : ২২ মে ২০২০, ১৬:৫৭ | প্রকাশিত : ২২ মে ২০২০, ১৬:৪৬

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তাণ্ডবে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮০ জনে দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে কলকাতায় ১৯ জন এবং বিভিন্ন জেলায় ৬১ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। ক্ষয়ক্ষতি মেরামতে বৃহস্পতিবার প্রাথমিকভাবে এক হাজার কোটি টাকাও বরাদ্দ করেছে রাজ্য সরকার। খবর আনন্দবাজারের।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গ সফরকালে ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় রাজ্যকে এক হাজার কোটি টাকা অর্থসাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, মৃতদের পরিবারপিছু দুই লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে। এবং আহতদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে অর্থসাহায্য করা হবে। পাশাপাশি, ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ খতিয়ে দেখতে একটি কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক দলও রাজ্যে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন মোদি।

করোনা পরিস্থিতিতে আর্থিক সংকট চলছে। তাই বিপর্যয় মোকাবিলার প্রতিটি টাকা হিসাব করে খরচ করার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

প্রশাসনের প্রাথমিক হিসাবে, আম্পান ৪০০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে তাণ্ডব চালিয়েছে। সাত-আটটি জেলা খুবই ক্ষতিগ্রস্ত, আরও চার-পাঁচটি জেলা বিপর্যস্ত। ক্ষয়ক্ষতির বিস্তারিত তথ্য জোগাড় করতে প্রতিটি দপ্তরকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, ‘১৭৩৭ সালে এমন দুর্যোগ হয়েছিল। সতর্কবার্তা পেয়ে পাঁচ লাখেরও বেশি মানুষকে নিরাপদ জায়গায় সরানো হয়েছিল বলে লক্ষাধিক প্রাণ বাঁচানো গিয়েছে। দুই ২৪ পরগনা ও কলকাতায় বিপুল ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এর তীব্রতা আয়লার থেকেও অনেক বেশি। এ করোনার থেকেও ভয়াবহ দুর্যোগ।’

এদিকে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে শুক্রবার সকালে রাজ্যে আসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সঙ্গে নিয়ে রাজ্যের বিধ্বস্ত জেলাগুলোর পরিস্থিতি আকাশপথে পর্যবেক্ষণ করেন তিনি। এরপর বসিরহাটে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করতে সেখানে পৌঁছন মোদি। সেখানে ধনখড় এবং মমতাকে সঙ্গে নিয়ে আম্পানের জেরে জেলায় ক্ষয়ক্ষতির মূল্যায়ন করেন তিনি। বৈঠকের পর ওড়িশায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যান মোদি।

(ঢাকাটাইমস/২২মে/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত