ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিশনার্স বাংলাদেশের ‘ডানো পাওয়ার ব্র্যান্ডটক’ অনুষ্ঠিত

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ জানুয়ারি ২০২১, ১০:৩০

ব্র্যান্ড এবং মার্কেটিং পেশাজীবীদের কমিউনিটি ‘ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিশনার্স বাংলাদেশে’র আয়োজনে দ্বিতীয় ব্র্যান্ডটক অনুষ্ঠিত হয়েছে। চার দিনের এই আয়োজনের বিষয় ছিল ‘স্টোরিজ অব রিভাইভাল’। চারটি আলাদা আলাদা সেশনে অনুষ্ঠিত ব্র্যান্ডটক শুরু হয় ২০২০ সালের ২৬ ডিসেম্বর। শেষ হয় এ বছরের ১৬ জানুয়ারি।

প্রতি শনিবার রাতে ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিশনার্স বাংলাদেশ ফেসবুক পেজ এবং গ্রুপে অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা হয়। এই আয়োজনের প্রধান প্রধান স্পন্সর ছিল ডানো পাওয়ার ব্রট টু ইউ বাই ওয়ালটন, এসিআই পিওর রাইস এবং অ্যাডফিনিক্স।

দেশ-বিদেশের উদ্যোক্তা, অ্যাকাডেমিয়া, প্রধান নির্বাহী, প্রধান বিপণন কর্মকর্তা, এজেন্সি প্রোফেশানালস, ডিজিটাল স্ট্র্যাটেজিস এবং ওভারসিজ ঘরানা থেকে ২৬ জন প্রথিতযশা আলোচক ব্র্যান্ড এবং মার্কেটিং এর ২৬টি বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।

খন্ড খন্ড বিষয়ের উপর আলোচনায় তারা অংশ নিয়ে কোভিড ১৯ এর দুঃসময়ে টিকে থাকা, ঘুরে দাঁড়ানো এবং সামনে সফলভাবে অগ্রসর হওয়ার জন্য করণীয় সম্পর্কে তথ্যভিত্তিক আলোচনা করেন। এসব আলোচনা মার্কেটার এবং উদ্যোক্তাদের জন্যে বিশেষভাবে উপকারে আসবে বলে আয়োজকরা মনে করছেন। দ্বিতীয় বারের মত আয়োজিত এবারের ব্র্যান্ডটকে প্রথম দিনে দেশের অন্যতম মার্কেটিং মায়েস্ত্রো জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. মীজানুর রহমানের বিশেষ টকের মধ্য দিয়ে এবারের ‘ব্র্যান্ডটক’ শুরু হয়।

নেসলে বাংলাদেশের সেলস ডিরেক্টর সৈয়দ ইকবাল মাহমুদ হোসেন, ব্র্যান্ড-মার্কেটিং ক্যাটালিস্ট আফতাব মাহমুদ খুরশিদ, আরলা ফুড বাংলাদেশের হেড অব মার্কেটিং গালিব বিন মোহাম্মদ, বিপ্রোপার্টির হেড অব মার্কেটিং অ্যান্ড পাবলিক রিলেসানস মেহজাবিন চৌধুরী, ফিল্ম মেকার অমিতাভ রেজা চৌধুরীর বক্তব্যের মধ্য দিয়ে প্রথম দিনের আয়োজন শেষ হয়।

দ্বিতীয় সেশন শুরু হয় সোসাইটি ফর লিডারশিপ স্কিলস ডেভেলপমেন্টের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও প্রধান নির্বাহী অধ্যাপক মঈনুদ্দিন চৌধুরীর আলোচনা দিয়ে। এই পর্বে ম্যাটবাইকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা কার্তিক সুব্রামানি, ডন ফেসিলেটেশান ও কন্সালটেন্সির চিফ ইন্সপেরিশনাল অফিসার ডন সামদানি, প্রথম আলো ডিজিটালের হেড অব বিজনেস এবিএম জাবেদ সুলতান পিয়াস বক্তব্য দেন। এছাড়াও আলোচনায় অংশ নেন 'এনোমিয়া'র ম্যানেজিং ডিরেক্টর আরাফুল ইসলাম চৌধুরী।

তৃতীয় দিনের সেশন শুরু হয় এসকেবি টেক ভেঞ্চারের প্রতিষ্ঠাতা ও মাইক্রোসফট বাংলাদেশ, মিয়ানমার, নেপাল, ভুটান ও লাওসের সাবেক ম্যানেজিং ডিরেক্টর সোনিয়া বশির কবিরের আলোচনার মধ্য দিয়ে।

এই পর্বে আলোচক হিসেবে অংশ নেন এমএম ইস্পাহানী লিমিটেডের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার এস এম দিদারুল হাসান, রকমারি ডটকম ও অন্যরকম গ্রুপের চেয়ারম্যান মাহমুদুল হাসান সোহাগ, ফুডপান্ডার হেড অব মার্কেটিং মনিষা সাফিয়া তারেক, নেপাল ডিজিটাল অ্যাডভান্টেজের হেড অব অপারেশান শাহবাব সাব্বির, অ্যাডফিনিক্সের হেড অব অ্যাডটেক লুতফি চৌধুরী, মাইন্ড শেয়ার বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক তাসনুভা চৌধুরী।

ব্র্যান্ডটকের শেষ সেশনে অংশ নেন দেশের আরো সাত জন প্রথিতযশা ও স্বনামধন্য বৃহৎ শিল্প উদ্যোক্তা, অ্যাকাডেমিক মায়েস্ত্রো, প্রধান নির্বাহী, প্রধান বিপণন কর্মকর্তা, ডিজিটাল স্ট্র্যাটেজিস।

মার্কেটিং সোসাইটি অব বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট মার্কেটিং মেন্টর আশরাফ বিন তাজ, ওয়ালটন ব্র্যান্ড ডেভেলপমেন্টের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ফিরোজ আলম, দেশের অন্যতম বৃহৎ শিল্প পরিবার আকিজে’র গ্রুপ ম্যানেজিং ডিরেক্টর শেখ বশির উদ্দিন, কর্পোরেট কোচ ও সিন্দাবাদ ডট কমের সিইও কামরুল হাসান, এসিআই কনজ্যুমার ব্র্যান্ডসের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সৈয়দ আলমগীর, ‘নগদ’ এর সিএমও কিংশুক হক।

শেষ বক্তা হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ-এর সহযোগী অধ্যাপক সাইফ নোমান খান আলোচনায় অংশ নেন।

ব্র্যান্ডটকের টাইটেল স্পন্সর ‘ডানো পাওয়ার’ এর হেড অব মার্কেটিং গালিব বিন মোহাম্মদ বলেন, ‘এই প্রতিকূল সময়ে ব্যবসায়ে টিকে থাকার জন্য এবং ভোক্তাদের সেবা অব্যাহত রাখার জন্যে ব্যবসায়ী এবং ব্র্যান্ড মার্কেটিং টিমকে সবচেয়ে কার্যকরী বিষয়ে ফোকাসড থাকা দরকার। আলোচকরা সামনে এগিয়ে যাবার জন্যে নানান পন্থা নিয়ে কথা বলেছেন। আমাদের মার্কেটিয়ারেরা এই ‘ব্র্যান্ডটক’ থেকে দরকারি ইনসাইটস পেয়েছেন বলেই আমার বিশ্বাস। অনলাইনে প্রতিটি টক নিয়েও প্রচুর ইন্টারঅ্যাকশন হয়েছে সেখান থেকে অনেক দিক-নির্দেশনা এসেছে। ব্র্যান্ডটকের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে ‘ডানো পাওয়ার’ টিম অত্যন্ত আনন্দিত।’

‘সামগ্রিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে আমাদের সিগনেচার প্রোগ্রাম ‘ব্র্যান্ডটক’ এবার অনলাইনে কিন্তু বড় পরিসরে আয়োজন করতে পেরেছি বলে খুব ভালো লাগছে’ এমনটাই বলেছেন ‘ব্র্যান্ড প্রাক্টিশনার্স বাংলাদেশ’ এর প্রতিষ্ঠাতা মীর্জা মো. ইলিয়াস।

সবার সহযোগিতায় এ বছরই তৃতীয় ব্র্যান্ডটক আয়োজন করা হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। একই সঙ্গে সকল বক্তা, পার্টনার, বিজ্ঞাপন প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান, ব্র্যান্ড মার্কেটিং পেশাজীবীদের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ ও ধন্যবাদ প্রদান করেন।

ডানো পাওয়ার ব্র্যান্ডটক- এর স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার প্রথমআলো.কম, হট বেভারেজ পার্টনার ইস্পাহানি, ই-কমার্স পার্টনার প্রিয় শপ, ডিজিটাল পার্টনার এস্কিমি, স্কিল পার্টনার ক্রিয়েটিভ আইটি, নলেজ পার্টনার রকমারি.কম, লাইফস্টাইল পার্টনার ফিয়োনা, স্টেশনারি পার্টনার গুডলাক বলপেন, লাইভ পার্টনার ভাইসব, মিডিয়া পার্টনার অ্যাডস অব বাংলাদেশ, ক্রিয়েটিভ পার্টনার বাজুকা, ইভেন্ট পার্টনার বিটিএল হাউজ, টিভি পার্টনার দীপ্ত টিভি, পিআর পার্টনার টিম পিআর।

সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে এই প্রোগ্রামে যুক্ত ছিল ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া মার্কেটার্স অ্যাসোসিয়েশানস (এমা),মার্কেটার্স ইন্সটিটিউট অব বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশ কর্পোরেট ফোরাম ।

ব্র্যান্ডটকের প্রথম তিন পর্ব সঞ্চালনা করেন ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিশনার্স বাংলাদেশের ফাউন্ডার অ্যাডমিন মীর্জা মো. ইলিয়াস। শেষ পর্বটি সঞ্চালনা করেন আরলা ফুড বাংলাদেশের হেড অব মার্কেটিং গালিব বিন মোহম্মদ।

প্রায় দুই লাখ ব্র্যান্ড ও মার্কেটিং পেশাজীবীরা এই লাইভ প্রোগ্রাম উপভোগ করেন। তাদের স্বতঃস্ফূর্ত মতামত দেন।

ডানো পাওয়ার ব্র্যান্ডটক এর সকল টকগুলোর সারাংশ এবং অন্যান্য মার্কেটারদের লেখা নিয়ে একটি প্রকাশনা প্রকাশিত হবে বলে আয়োজকরা জানান।

উল্লেখ্য, মতামত প্রদানের ভিত্তিতে ১৪০ জনকে গিফট হ্যাম্পার প্রদান করা হবে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা। পুরো প্রোগ্রামটি সবার জন্য উন্মুক্ত ছিল। এবারের ব্র্যান্ডটকটি ‘ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিশনার্স বাংলাদেশ’ এর পেজ থেকে দেখা যাবে। পেজ লিঙ্ক- https://www.facebook.com/BrandPractitionersBD

ব্র্যান্ডটক, ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিশনার্স বাংলাদেশের একটি সিগনেচার প্রোগ্রাম। ২০১৯ সালে এই ব্র্যান্ডটক প্রোগ্রামটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল গুলশানের একটি পাঁচ তারকা হোটেলে। যেখানে দুই শতাধিক মার্কেটিয়ার যোগ দিয়েছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২১জানুয়ারি/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :