সরকার খালেদা জিয়াকে বিদেশ যেতে দেবে বলে আশা ফখরুলের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৬ মে ২০২১, ১৪:৩৮ | প্রকাশিত : ০৬ মে ২০২১, ১২:৫৩
ফাইল ছবি

সরকার বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে এ আশা প্রকাশ করেন তিনি।

খালেদা জিয়ার অবস্থা সম্পর্কে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানিয়েছেন উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তাকে (খালেদা) বিদেশে নিতেতার পরিবারের ইচ্ছার কথা জানিয়েছি। পরিবার চায় খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিয়ে উন্নত চিকিৎসা করাতে।’

তিনি বলেন, করোনার পর যে জটিলতা হয় তা কিন্তু মাঝে মাঝে টার্ন নেয় বিভিন্ন দিকে। উনার (খালেদা জিয়া) যে বয়স, উনার যে বিভিন্ন রোগ আছে, এর আগে উনি যে প্রায় তিন বছর কারাগারে ছিলেন, এখনো তিনি অন্তরীণই আছেন। এই অবস্থার প্রেক্ষিতে তার যেসমস্ত জটিলতা হয়েছে এবার।

ফখরুল বলেন, সেজন্যই আমাদের দেশের প্রায় বেশির ভাগ মানুষের আকাঙ্ক্ষা আছে ইচ্ছা আছে যে, তার চিকিৎসাটা উন্নত কোনো হাসপাতালে হওয়া উচিত। বাংলাদেশে উন্নত হাসপাতালেই তিনি চিকিতসা নিচ্ছেন। আরো উন্নত বিদেশে হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়া সম্ভব কিনা। আপনারা জানেন যে, গতকাল তার পরিবার থেকে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্যে যে অনুমতি দরকার সেই অনুমতি চাওয়া হয়েছে। আমরা আশা করি, সরকার মানবিক কারণে তার বিদেশে চিকিৎসার ব্যবস্থা করবেন এবং এই দেশের ১৮ কোটি মানুষের সবচেয়ে প্রিয় নেতার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করবেন।

খালেদা জিয়ার চিকিসার অবস্থা তুলে ধরে মির্জা ফখরুল বলেন, আপনারা জানেন যে, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ২৭ তারিখ থেকে এভারকেয়ার হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীনে র‌য়েছেন। তাকে এখানে সর্বপ্রকার চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে এবং আমাদের চিকিৎসকরা অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে তার চিকিৎসা করছেন। বাংলাদেশের মানুষ মৌলিক অধিকার যে, তারা তাদের নেতাকে সুস্থ দেখতে চায়।

বুধবার রাতে খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার পরিবারের পক্ষ থেকে খালেদা জিয়াকে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠাতে অনুমতি চেয়ে আবেদনপত্র স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের কাছে পৌঁছে দেন।

অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল করোনায় মারা যাওয়া বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাদের ১০টি পরিবারের মাঝে দলের পক্ষে ঈদের শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেন।

(ঢাকাটাইমস/৬মে/বিইউ/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :