প্রাকৃতিক দুর্যোগে বাংলাদেশে বেড়েছে মানবপাচার: জাতিসংঘ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ জানুয়ারি ২০২৩, ১৯:০১
প্রতিকী ছবি

প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় ও টাইফুনের কারণে লাখ লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হওয়ার পর বাংলাদেশ ও ফিলিপাইনে বেড়েছে মানব পাচারের ঘটনা। জাতিসংঘের মাদক ও অপরাধ বিষয়ক কার্যালয় (ইউএনওডিসি) মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এমনটাই জানিয়েছে।

জলবায়ু-সম্পর্কিত বিপর্যয়গুলি মানব পাচারের কারণ হয়ে উঠার পেছনের ঘটনা খুঁজতে গিয়ে সংস্থাটি বলেছে, অপরাধী চক্রগুলি ক্রমবর্ধমান সংখ্যক উপড়ে যাওয়া মানুষকে শোষণের অওতায় রাখে। ইউক্রেন যুদ্ধ মানব পাচারের আরেকটি ঝুঁকির কারণ বলেও উল্লেখ করেছে ইউএনওডিসি।

ঘানা এবং ক্যারিবিয়ান অঞ্চলে খরা এবং বন্যা কারণে অনেকেই বাস্তু হারিয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তনই মূলত পাচারের ঝুঁকি বাড়াচ্ছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যদিও মানুষ পাচারে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের একটি পদ্ধতিগত বৈশ্বিক বিশ্লেষণ অনুপস্থিত, বিশ্বের বিভিন্ন অংশে সম্প্রদায় স্তরের অধ্যয়নগুলি আবহাওয়াজনিত বিপর্যয়গুলিকে ব্যক্তি পাচারের মূল কারণ হিসেবে নির্দেশ করে।

প্রতিবেদনটি ২০১৭ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত সংগৃহীত ১৪১টি দেশের তথ্য এবং ৮০০টি আদালতের মামলার বিশ্লেষণের ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব ‘অনুপাতিকভাবে’ দরিদ্র কৃষিকাজ, মাছ ধরা এবং অন্যান্য সম্প্রদায়কে প্রভাবিত করেছে যা মূলত তাদের জীবিকার জন্য প্রাকৃতিক সম্পদ আহরণের ওপর নির্ভর করে।

রিপোর্টের প্রধান লেখক ফ্যাব্রিজিও সারিকা একটি প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেছেন, ‘একবার তাদের জীবিকা নির্বাহের উপায় থেকে বঞ্চিত এবং তাদের সম্প্রদায় থেকে পালাতে বাধ্য করা হয়েছিল। লোকেরা পাচারকারীদের সহজ শিকারে পরিণত হয়েছিল।

শুধু ২০২১ সালে জলবায়ু-সম্পর্কিত বিপর্যয়গুলি অভ্যন্তরীণভাবে ২ কোটি ৩৭ লাখ হাজারের বেশি লোক বাস্তুচ্যুত হয়েছে। অন্য অনেকে তাদের দেশ থেকে সম্পূর্ণভাবে পালিয়ে গেছে। যেহেতু বিশ্বের সমগ্র অঞ্চলগুলি ‘ক্রমবর্ধমানভাবে বসবাসের অযোগ্য’ হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে, লক্ষ লক্ষ মানুষ ‘অভিবাসন পথে শোষণের উচ্চ ঝুঁকির সম্মুখীন হবে।

সংঘাতের কারণে পাচারের শিকার বেশিরভাগ মানুষই আফ্রিকা এবং মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশের নাগরিক। একই সঙ্গে ইউক্রেনে চলমান যুদ্ধের কারণে লাখ লাখ মানুষ দেশটি ছেড়ে পালিয়েছেন। ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সম্ভাব্য আরেকটি বিপজ্জনক পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে।

ইউএনওডিসির মানবপাচার ও অভিবাসী চোরাচালান বিভাগের প্রধান ইলিয়াস চ্যাটজিস ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, ‘যুদ্ধ এবং অস্থিতিশীলতার কারণে মানবপাচার মোকাবিলা করাই এখন চ্যালেঞ্জ।’ তিনি বলেন, ইউক্রেনের ক্ষেত্রে প্রতিবেশী দেশগুলোর সহায়তা এবং ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষের প্রতি সমর্থন বৃদ্ধি করা গুরুত্বপূর্ণ।

কোভিড-১৯ মহামারী এশিয়া, লাতিন আমেরিকা এবং আফ্রিকার নিম্ন আয়ের দেশগুলোতে পাচারের শিকার হওয়া লোকজনকে শনাক্ত করা কঠিন করে তুলেছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/২৪জানুয়ারি/এসএটি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ

ভূমিকম্প: সিরিয়া ও তুরস্কে বহু হতাহত, সম্মিলিতভাবে দুর্যোগ কাটানোর ঘোষণা এরদোগানের

বেলুনের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধারে কাজ করছে মার্কিন নৌবাহিনী

তুরস্কে শক্তিশালী ভূমিকম্প, মৃতের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে

তুরস্কে ভূমিকম্পে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ১৭

তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত ৫

যুক্তরাষ্ট্রে মাইনাস ৭৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার রেকর্ড

দক্ষিণ কোরিয়ায় মাছ ধরা নৌকা উল্টে নিখোঁজ ৯

জেলেনস্কির সঙ্গে ঐকমত্য: পশ্চিমা অস্ত্র রাশিয়ায় আঘাত করবে না

আদানি একা নন, দুর্নীতিতে স্ত্রী-দুই ভাই-বেয়াইসহ আত্মীয়রা, বলছে হিনডেনবার্গ

পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট পারভেজ মোশাররফের মৃত্যু

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :