পেটের আলসারের মহৌষধ এলাচ! ডায়াবেটিসও রাখে নিয়ন্ত্রণে

ঢাকা টাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ১৫ জানুয়ারি ২০২৪, ০৮:৩৫

খাবারের স্বাদ এবং সুবাস বাড়ানোর কাজে এলাচের জুড়ি মেলা ভার। তাই তো পায়েস থেকে শুরু করে পিঠা-পুলি, সবকিছুতেই এই মশলার অবাধ ব্যবহার।

তবে শুধু স্বাদ নয়, বরং স্বাস্থ্যগুণেও সেরার সেরা এলাচ। বিশেষত, পেটের একাধিক সমস্যাকে চিরতরে বিদায় জানাতে চাইলে যত দ্রুত সম্ভব এই মশলার সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতিয়ে নিতেই হবে। তাতেই উপকার পাবেন হাতেনাতে।

তাই আর সময় নষ্ট না করে পেটের সমস্যা দূরীকরণে এলাচের কার্যকারিতা সম্পর্কে বিশদে জেনে নিন। তাহলেই আপনার বন্ধ চোখ খুলে যাবে। তারপর থেকে আপনিও নিয়মিত এই মশলা সেবন করবেন। তাতেই ফিরবে আপনার পেটের স্বাস্থ্যের হাল।

বাড়বে হজমশক্তি​

অনেকেই নিয়মিত বদহজম, গ্যাস, অ্যাসিডিটির মতো সমস্যার ফাঁদে পড়ে বেজায় কষ্ট পান। কিন্তু এই রোগ থেকে মুক্তির পথ খুঁজে পান না। আপনিও কি সেই দলেরই সদস্য? তাহলে জেনে রাখুন, এই সমস্যায় একদম মহৌষধের মতো কাজ করে এলাচ।

কারণ এতে রয়েছে এমন কিছু উপকারী উপাদান, যা কোলোনের স্বাস্থ্য ফেরানোর কাজে সিদ্ধহস্ত। আর অন্ত্রের স্বাস্থ্যের হাল ফিরলে যে অচিরেই বদহজম, গ্যাস, অ্যাসিডিটির মতো ছুটকো সমস্যার ফাঁদ এড়িয়ে যেতে পারবেন, তা তো বলাই বাহুল্য!

দূর হবে বমি বমি ভাব​

এই মশলায় মজুত থাকা কিছু উপাদান বমি বমি ভাব এবং বমি কমানোর কাজে সিদ্ধহস্ত। তাই হঠাৎ করে বমি পেলে বা বমি শুরু হলে একটা বা দুটি এলাচ গুঁড়া করে পানি দিয়ে গিলে খেয়ে নিন। তাতেই কিছুক্ষণের মধ্যে সমস্যা উড়ে যাবে।

তবে গর্ভাবস্থায় বমি বমি ভাব বা বমির মতো সমস্যার ফাঁদে পড়লে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ ছাড়া এলাচ খাবেন না। এই ভুলটা করলে কিন্তু ফেঁসে যাবেন।

পেটের আলসারের মহৌষধ

এইচ পাইলোরি নামক একটি ব্যাকটেরিয়ার খপ্পরে পড়লে ডিওডিনাম বা পাকস্থলীতে ক্ষত হতে পারে। আর এই সমস্যার পোশাকি নাম স্টমাক আলসার।

মনে রাখবেন, পেটের আলসার একটি জটিল অসুখ। তাই এই অসুখের ফাঁদে পড়লে যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। এরপর নিয়ম মেনে ওষুধ খান। সেই সঙ্গে প্রতিদিন সেবন করুন এলাচ। তাতেই এই সমস্যার ফাঁদ কাটিয়ে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠতে পারবেন।

নিয়ন্ত্রণে থাকবে ব্লাড সুগার​

ডায়াবেটিসকে কন্ট্রোলে না রাখতে পারলে অচিরেই কমবে আয়ু। তাই যেনতেন প্রকারেণ সুগারকে বশে রাখতে হবে। এই কাজে আপনাকে সাহায্য করতে পারে এলাচ। কারণ এই ভেষজে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা শরীরে ইনসুলিন সেনসিটিভিটি বাড়ানোর কাজে সিদ্ধহস্ত।

দেহে ইনসুলিনের কার্যকারিতা বাড়লে যে সহজেই ব্লাড সুগারকে বশে আনতে পারবেন, তা তো বলাই বাহুল্য! তাই ডায়াবেটিস রোগীরা নিয়মিত এলাচ সেবন করতে ভুলবেন না যেন! তাতেই আপনার সুস্থ থাকার পথ প্রশস্থ হবে।

লিভারের স্বাস্থ্য ফিরবে

আজেবাজে খাবার খাওয়ার কারণে লিভারের উপর ক্ষতিকর প্রভাব পড়তে পারে। এমনকি পিছু নিতে পারে ফ্যাটি লিভার, লিভার ফাইব্রোসিসের মতো অসুখ।

তবে ভালো খবর হলো, নিয়মিত এলাচ সেবন করলেই লিভার বাবাজির স্বাস্থ্যের হাল ফেরাতে পারবেন। তাই সুস্থ-সবল জীবন কাটাতে চাইলে যত দ্রুত সম্ভব এই মশলার সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতিয়ে নিন। তাতেই আপনার সুস্থ থাকার পথ প্রশস্ত হবে।

(ঢাকাটাইমস/১৪জানুয়ারি/এজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :