একুশে বইমেলায় লেখক-গবেষক আবদুল্লাহ আল মোহনের তিনটি মননশীল গ্রন্থ

সিরাজুল কবির সাকিব
 | প্রকাশিত : ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫:০৭

অমর একুশে বইমেলা ২০২৪-এ লেখক ও গবেষক আবদুল্লাহ আল মোহনের তিনটি মননশীল গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। এই তিনটি বই-ই যেকোনো পাঠকের জন্য যুগপৎভাবে আনন্দ, শিক্ষা, জ্ঞান ও প্রজ্ঞা সৃষ্টিতে যে সহায়ক হবে- এ কথা নিশ্চিত করে বলা যায়। শুধু সস্তা আবেগে অসজ্র গ্রন্থ প্রকাশের বর্তমান স্রোতধারায় শিক্ষক-গবেষক ও বিপুল শিক্ষার্থীর জন্য জ্ঞানচর্চার এক নিবিষ্ট সংগঠক আবদুল্লাহ আল মোহনের গ্রন্থ তিনটি এত বেশি সমসাময়িক, ইতিহাস ও ঐতিহ্যের অপরিহার্য অঙ্গ এবং একই সঙ্গে ভিন্ন ভিন্ন জ্ঞানতত্ত্বের সম্মিলন ঘটিয়েছে যে গ্রন্থগুলোর কন্টেন্টই এর বিশেষত্বকে আলাদাভাবে নির্মাণ করে দেয়। অন্যধারা ও কথাপ্রকাশ প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত বইগুলো মেলার ২১, ৪১-৪৪ নং স্টলে পাওয়া যাচ্ছে। প্রকাশিত তিনটি বই হলো: ‘আত্মহত্যা নয়, আত্মবিশ্বাসে বাঁচি’, ‘ব্যর্থতায় সফল যারা’, ‘তারুণ্যের কিংবদন্তি শেখ কামাল’।

‘আত্মহত্যা নয়, আত্মবিশ্বাসে বাঁচি’

আত্মহত্যা! একটি জীবন্ত জীবনের হাহাকার, একটি স্বপ্নের অপমৃত্যু, একটি পরিবারের অপূরণীয় দীর্ঘশ্বাস আর কতগুলো বিলম্বিত প্রশ্নের হতাশাজনক উত্তর। প্রতিটি আত্মহত্যাই পরিবারের জন্য অসহনীয় চাপা কষ্ট। সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বব্যাপী আত্মহত্যার প্রবণতা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। বাংলাদেশেও এ প্রবণতা আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে। গবেষক ও অপরাধবিজ্ঞানীরা নানাভাবে এর ব্যাখ্যা দিয়ে থাকেন। আর তাই আত্মহত্যা প্রতিরোধ বিশ্বের সব দেশের একটি বড় চ্যালেঞ্জ। প্রতি বছর বিশ্বে যত সংখ্যক মৃত্যু হয়, তার মধ্যে অন্যতম কারণ আত্মহত্যা। বিশেষজ্ঞেরা বলছেন, পারিবারিক নির্যাতন, কলহ, শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন, পরীক্ষা ও প্রেমে ব্যর্থতা, দারিদ্র্য, বেকারত্ব, প্রাত্যহিক জীবনের অস্থিরতা, নৈতিক অবক্ষয় এবং মাদক ইত্যাদি কারণে মানুষ আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছেন। আত্মহত্যা সম্পর্কে নিজে জানা এবং অপরকে জানানোর, সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে সম্মিলিতভাবে আত্মহত্যা প্রতিরোধ করে সুস্থ্য ও সুন্দর জীবন গড়ার প্রণোদনা জোগাতে সামাজিক দায়িত্বের অংশ হিসেবে শিক্ষক মনোবিদ রাশনা রশীদ এবং গবেষক আবদুল্লাহ আল মোহন দম্পতি রচনা করেছেন আত্মপ্রত্যয়ী গ্রন্থ ‘আত্মহত্যা নয়, আত্মবিশ্বাসে বাঁচি’। আনন্দময় সহশিক্ষার সৃজনশীল আয়োজন ‘মঙ্গল আসর’-এর আলোচনাকেন্দ্রিক মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে আত্মউন্নয়নমূলক গ্রন্থ ‘আত্মহত্যা নয় আত্মবিশ্বাসে বাঁচি’ প্রকাশিত হয়েছে এবারের বইমেলায়।

‘ব্যর্থতায় সফল যারা’

সফলতা কিন্তু একবারে আসে না। বারবার হোঁচট খাওয়া কিন্তু হার না মানার গল্প থাকে প্রত্যেক সফল মানুষের জীবনে। কঠিন সময় আসে। কিন্তু আমরা তা কাটিয়ে উঠি। এ থেকে প্রতিনিয়ত শিখি, জীবনের স্বপ্নপথে এগিয়ে চলি। বিষণ্ণতা কাটিয়ে আরও পরিণত হই। এক্ষেত্রে আমাদের এগিয়ে নেয় আত্মপ্রত্যয়, আত্মবিশ্বাস। সেই আত্মবিশ্বাস দৃঢ় করার অনুপ্রেরণা জাগাতেই বিশ্বখ্যাত বাইশজন সফল মানুষের জীবনের উজ্জীবক কথা ও কাহিনি নিয়ে নির্মিত হয়েছে গবেষক, শিক্ষক আবদুল্লাহ আল মোহন-এর বই ‘ব্যর্থতায় সফল যারা’। বইমেলায় বইটি প্রকাশ করেছে ‘কথাপ্রকাশ’ (প্যাভিলিয়ন ২১)। ‘ব্যর্থতায় সফল যারা’র বাস্তব জীবনের গল্পগুলো নবীনপ্রাণ শিক্ষার্থীদের জীবনে আশার আলো জ্বালাতে সহায়ক হবে।

‘তারুণ্যের কিংবদন্তি শেখ কামাল’ বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী ছিলেন শেখ কামাল। ছিলেন একাধারে ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠক, নাট্যকর্মী ও নাট্য সংগঠক। শিল্পকলার প্রায় সব ক্ষেত্রেও সুনিপুণ পারদর্শিতা ছিল। ছাত্র সংগঠক ও ছাত্রনেতা, সাহসী এই মুক্তিযোদ্ধা স্বাধীন বাংলাদেশে তরুণ ও যুব সমাজকে সৃজনশীল রাজনীতি, সাংগঠনিক কার্যক্রম আর ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে ব্যাপকভাবে আকৃষ্ট করেছিলেন; ছিলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একজন কমিশন্ড অফিসার। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র আধুনিক ক্রীড়াঙ্গণের রূপকার শহীদ শেখ কামালের মতো মেধাবী এবং ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অঙ্গণের কিংবদন্তি ব্যক্তিত্ব বেঁচে থাকলে সমাজ ও দেশকে আরও অনেক কিছুই দিতে পারতেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকের বুলেট তাঁর শারীরিক মৃত্যু ঘটিয়েছে, কিন্তু তিনি মৃত্যুঞ্জয়ী হয়ে আছেন এ দেশের ক্রীড়ায়, শিল্প-সংস্কৃতিতে। মহান মুক্তিযুদ্ধ, ছাত্র রাজনীতি, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড, খেলার মাঠ থেকে নাটকের মঞ্চ-সর্বত্র দীপ্ত উপস্থিতির বর্ণাঢ্য কর্মবীরের জীবন নিয়ে গবেষক, শিক্ষক আবদুল্লাহ আল মোহন রচিত শহীদ শেখ কামালের প্রেরণাদায়ী জীবনী ‘তারুণ্যের কিংবদন্তি শেখ কামাল’। জীবনী গ্রন্থটি পাঠকালে গভীরভাবে আবিষ্কার করা যায় এক মেধাবী, সাহসী, দেশপ্রেমিক,স্পষ্টবাদী, সফল সংগঠককে; একইসঙ্গে তরুণ প্রজন্মের পাঠক শেখ কামালের সান্নিধ্যও অনুভব করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :