যুক্তরাজ্যে অবৈধ প্রবেশের দায়ে দোষী সাব্যস্ত ১৬৫ অভিবাসী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭:৩৫ | প্রকাশিত : ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬:০১

২০২২ সালের জুন থেকে গত বছরের মে পর্যন্ত এক বছরে যুক্তরাজ্যে চ্যানেল পাড়ি দিয়ে অবৈধ প্রবেশের দায়ে ১৬৫ জন অভিবাসীকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। এছাড়া দেশটিতে নতুন সীমান্ত ও জাতীয়তা বিষয়ক আইন কার্যকর হওয়ার পর থেকে ছোট নৌকায় আসা অভিবাসীদের গ্রেপ্তারের হার বেড়েছে।

ইউনিভার্সিটি অব অক্সফোর্ড এবং দাতব্য সংস্থাগুলোর একটি যৌথ সমীক্ষা প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

২০২২ সালের জুনে সীমান্ত ও জাতীয়তা বিষয়ক নতুন আইন কার্যকর করে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ। আইনটির ২৪ অনুচ্ছেদে অবৈধ প্রবেশের দায়ে দোষী সাব্যস্ত অভিবাসীদের জন্য সর্বোচ্চ চার বছরের কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়। এছাড়া ২৫ ধারায় অবৈধ উপায়ে কাউকে ব্রিটেনে প্রবেশে সহায়তাকারী ব্যক্তির জন্য সর্বোচ্চ যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়।

নতুন আইনটি বাস্তবায়নের পর থেকে ব্রিটেনে আসা অভিবাসীদের অবৈধ প্রবেশের দায়ে আটক ও সাজার হার বেড়েছে।

অক্সফোর্ড এবং এনজিওগুলোর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জাতীয়তা এবং সীমান্ত আইন অনুসরণ করে ২০২২ সালের জুন থেকে ২০২৩ সালের মে মাস পর্যন্ত প্রায় ২৪০ জনের বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্যে ‘অবৈধ অনুপ্রবেশের’ অভিযোগ আনা হয়েছে।

এছাড়া ১৬৫ জনকে অবৈধ উপায়ে চ্যানেল পাড়ি দেয়ার অপরাধে দোষী সাব্যস্ত করেছে ব্রিটিশ আদালত।

গবেষকদের মতে, বেআইনি প্রবেশে গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিদের মধ্যে আলবেনিয়ান, সুদান এবং মিশর থেকে আসা অভিবাসীদের সংখ্যা বেশি।

নতুন নিয়মটি কার্যকরের পর থেকে এ পর্যন্ত ৪৯ জনকে অবৈধ অভিবাসনে সহায়তার দায়ে অভিযুক্ত করা হয়েছে। উদাহরণস্বরূপ, চ্যানেলের ছোট নৌকা চালানোর অপরাধে সাত জনকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

দুই বছর ধরে ব্রিটেন সমুদ্রপথে আসা অভিবাসীদের বিরুদ্ধে একটি শাস্তিমূলক নীতি শুরু করেছে। ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষের নেওয়া এমন সিদ্ধান্ত মূলত ইউরোপে প্রথম শুরু করেছিল গ্রিস।

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির সেন্টার ফর ক্রিমিনোলজির পিএইচডি গবেষক এবং বর্ডার ক্রিমিনোলজিস রিসার্চ ল্যাবরেটরির সদস্য ভিক্টোরিয়া টেলর বলেন, ব্রিটেনের নতুন আইনে কাউকে দোষী সাব্যস্ত করার জন্য শুধু নৌকার নেতৃত্বে থাকাই যথেষ্ট। প্রায়ই ব্রিটিশ উপকূলরক্ষীরা ড্রোন এবং লং-লেন্স ক্যামেরা থেকে পাওয়া ছবির মাধ্যমে ছোট নৌকা কারা পরিচালনা করছে সেটি খুঁজে বের করে থাকে। এছাড়া কখনো কখনো নৌকার অন্য যাত্রীদের সাক্ষ্যই অভিবাসীদের দোষী প্রমাণে যথেষ্ট বলে ধরে নেয় কর্তৃপক্ষ।

সম্প্রতি ইব্রাহিমা বাহ নামের এক সেনেগালিজ নাগরিককে ২০২২ সালের ডিসেম্বরে ৪৩ জন যাত্রী পরিবহনের দায়ে সাড়ে নয় বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে ব্রিটেনের আদালত। পাচারকারীদের অর্থ দেয়ার পরিবর্তে ফরাসি উপকূল থেকে নৌকা চালিয়ে নেয়ার দায়িত্বে ছিলেন তিনি।

সূত্র: ইনফোমাইগ্রেন্টস

(ঢাকাটাইমস/২৯ফেব্রুয়ারি/এমআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ

ট্রাম্পের বিচার চলাকালীন আদালতের বাইরে নিজের গায়ে আগুন দিলেন যুবক

ইরান-ইসরায়েল দুপক্ষই মিথ্যাচার করছে: এরদোয়ান

ইসরায়েলকে ‘সর্বোচ্চ পর্যায়ের’ জবাব দেওয়ার হুঁশিয়ারি ইরানের

প্যারিসে ইরানি কনস্যুলেটে বিস্ফোরক আতঙ্ক, সন্দেহভাজন আটক

ভারতে লোকসভা নির্বাচনের প্রথম পর্বের ভোটগ্রহণ শেষ 

ইরানে হামলায় অংশ নেয়নি যুক্তরাষ্ট্র: ব্লিঙ্কেন

ইসরায়েলের বিরুদ্ধে এখনই প্রতিশোধ নেওয়ার পরিকল্পনা নেই: ইরানি কর্মকর্তা

ইরান-ইসরায়েল উত্তেজনায় বিশ্ববাজারে বেড়েছে জ্বালানি তেলের দাম

ফিলিস্তিনকে পূর্ণ সদস্য পদ দেওয়ার প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্রের ভেটো

ইরানে হামলার আগে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্কবার্তা দিয়েছিলো ইসরায়েল: মার্কিন কর্মকর্তা

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :