করোনায় একজনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৮ মে ২০২৪, ২০:৫১ | প্রকাশিত : ১৮ মে ২০২৪, ১৯:২৫

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে একজন মারা গেছেন। মৃত ব্যক্তি একজন পুরুষ। করোনাভাইরাসের তীব্রতর প্রকোপ শেষে অনেকদিন পর একজনের মৃত্যু হলো।

এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ২৯ হাজার ৪৯৫ জনের। এরমধ্যে পুরুষ মারা গেছেন ১৮ হাজার ৮১৬ জন এবং নারী মারা গেছেন ১০ হাজার ৬৭৯ জন। অর্থাৎ প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে নারীর চেয়ে পুরুষের বেশি মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়াও এদিন করোনা শনাক্ত হয়েছে ১১ জন। সবমিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ লাখ ৫০ হাজার ২৩৪ জনে।

শনিবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩১৮ জনের। এর মধ্যে শনাক্ত হয়েছে ১১ জন। শনাক্তের হার তিন দশমিক ৪৬ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ০৬ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৮ দশমিক ৪১ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪৪ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ব্যক্তি একজন পুরুষ। তিনি ঢাকার বাসিন্দা। তার বয়স ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে। তিনি সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন।

এদিকে ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতাল ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ জন সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ২০ লাখ ১৭ হাজার ৭০৭ জন।

দেশে সরকারি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮৮৫টি ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩১৮টি। এ পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে এক কোটি ৫৬ লাখ ৯৬ হাজার ৭৩৫টি। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় এক কোটি চার লাখ ৫৪ হাজার ১২৪টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৫২লাখ ৪২ হাজার ৬১১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন দুজন । এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন চার লাখ ৫২ হাজার ৯৮০ জন এবং আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন চার লাখ ২৩ হাজার ৭২২ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ২৯ হাজার ২৫৪ জন।

এছাড়াও গত ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টাইন এবং আইসোলেশনে আসেননি কেউ। তবে কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন চারজন। এ পর্যন্ত কোয়ান্টোইনে ছিলেন ১৪ লাখ ৮৮ হাজার ১৬৪ জন এবং ছাড়পত্র পেয়েছেন ১৪ লাখ ৪২ হাজার ৫১২ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৪৫ হাজার ৬৪৮ জন।

উল্লেখ্য, দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৮ মার্চ। পরে ১৮ মার্চ প্রথমবারের মতো একজনের মৃত্যু হয়।

(ঢাকাটাইমস/১৮মে/টিএ/এসআইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

স্বাস্থ্য এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :