শ্রীলঙ্কায় হামলা

আহত শেখ সেলিমের জামাতার জন্য দোয়া চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ২১ এপ্রিল ২০১৯, ২১:৫৭

শ্রীলঙ্কায় বর্বরোচিত বোমা হামলায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের মেয়ে জামাই আহত হয়েছেন এবং নাতি নিখোঁজ বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ব্রুনেই সফররত প্রধানমন্ত্রী রবিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় এম্পায়ার অ্যান্ড কান্ট্রি ক্লাব হোটেলের বলরুমে প্রবাসী বাংলাদেশিদের দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ কথা জানান।

শ্রীলঙ্কায় ওই সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘একটা দুঃখজনক ঘটনা ঘটে গেছে শ্রীলঙ্কায়। সেখানে প্রায় আটটি জায়গায় বোমা হামলা হয়েছে। অনেক মানুষ সেখানে মারা গেছেন, বহু আহত হয়েছেন। এ ধরনের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই।`

সন্ত্রাসী, দুর্নীতিবাজ, মাদকাসক্তের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকারের জিরো টলারেন্স নীতির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, `বাংলাদেশে এদের কোনো স্থান হবে না।`

‘এই ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড, আসলে সন্ত্রাসী সন্ত্রাসীই, এদের কোনো ধর্ম নেই, এদের কোনো জাত নেই, এদের কোনো দেশ নেই, কিচ্ছু নেই। এরা সন্ত্রাসী। এদের বিরুদ্ধে সবাইকে সর্তক হতে হবে, সোচ্চার হতে হবে। কারণ, এরা মানুষের জীবন নষ্ট করে, মানুষের জীবন ধ্বংস করে দেয়।`

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আরেকটা দুঃখজনক ঘটনা হলো, শেখ সেলিমের মেয়ে তার জামাই ও দুই বাচ্চা নিয়ে শ্রীলঙ্কায় ছিল, সেখানে তারা রেস্টুরেন্টে খাচ্ছিলো। সেখানে বোমা হামলা হয়েছে। জামাই আহত হয়ে হাসপাতালে, বাচ্চাটার এখনো কোনো খবর পাওয়া যাচ্ছে না। আপনারা দোয়া করেন।`

সংসদ সদস্য শেখ সেলিম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফুপাতো ভাই। সেলিমের মেয়ে শেখ সোনিয়া তার স্বামী মশিউল হক চৌধুরী প্রিন্স ও দুই ছেলেকে নিয়ে বেড়াতে গেছেন শ্রীলঙ্কায়। তারা উঠেছেন কলম্বোর পাঁচ তারকা হোটেল সাংগ্রিলায়। সকালে তিনটি গির্জার পাশাপাশি যে তিনটি হোটেলে হামলা হয়েছিল, সাংগ্রিলা তার একটি। বাকি দুটি হোটেল হলো কিংসবারি এবং সিনামোন গ্র্যান্ড হোটেল।

এই হামলায় কোনো বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন কি-না, তা নিশ্চিত করে বলা না গেলেও ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনে প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম বলেন, ‘বোমা হামলার ঘটনাটির পর এখন পর্যন্ত দুজন বাংলাদেশি ‘আনঅ্যাকাউন্টেড ফর `(খোঁজ মিলছে না)। আমরা জেনেছি, একটি পরিবারের চারজনের মধ্যে দুজন ‘রিপোর্টেড`(তাদের খোঁজ আছে)। বাকি দুজনের একজন শিশু ও একজন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি ‘আনঅ্যাকাউন্টেড ফর`।

তখন পর্যন্ত ওই দুজনের পরিচয় জানা যায়নি বলে উল্লেখ করেন শাহরিয়ার আলম।

সকালে তিনটি হোটেল ও তিনটি গির্জায় ছয়টি বোমা বিস্ফোরণের পর বিকেলে আরেকটি হোটেলসহ দুটি স্থানে হামলা হয়। এতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত, ২০৭ জন মানুষের প্রাণ ঝরেছে। তাদের মধ্যে ৩৫ জন বিদেশিও রয়েছেন। আহত হয়েছেন পাঁচ শতাধিক মানুষ। এছাড়া নিখোঁজ রয়েছেন বেশ কিছু লোক। হতাহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে কর্তৃপক্ষ।

প্রবাসীদের সংবর্ধনার জবাবে সম্প্রতি নিউজিল্যান্ডে মসজিদের নামাজরত মুসলমানদের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কিছুদিন আগে দেখেছেন নিউজিল্যান্ড, সবচেয়ে শান্তিপূর্ণ এলাকা। সেখানে কেউ চিন্তাই করতে পারেনি এ রকম ঘটনা ঘটবে। সেখানে মসজিদের ভেতরে নামাজ পড়া অবস্থায় প্রায় ৬০ জনের মতো মানুষকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে।`

সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ, দুর্নীতি, মাদকের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের জিরো টলারেন্স নীতির কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জঙ্গিবাদ সন্ত্রাস নির্মূল করতে বাংলাদেশের জিরো টলারেন্স ঘোষণাই শুধু আমরা দেইনি। আমাদের সমস্ত গোয়েন্দা সংস্থাকে আমরা সব সময়ে সর্তক রেখেছি। এবং এই ধরনের কোনো চিহ্ন কোথাও দেখা গেলে আমরা সঙ্গে সঙ্গে তার ব্যবস্থা নিচ্ছি।`

‘বাংলাদেশের মাটিতে কোনো রকম সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, দুর্নীতিবাজ, মাদকাসক্তের কোনো স্থান হবে না।`

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদ, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মো. আশরাফ আলী খান খসরু, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ প্রমুখ।

সভাপতিত্ব করেন ব্রনেইয়ে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) মাহমুদ হোসাইন।

(ঢাকাটাইমস/২১এপ্রিল/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :