খুনের দায়ে তিনজনের ফাঁসি, সাতজনের যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০১ আগস্ট ২০১৯, ১৯:৫১ | প্রকাশিত : ০১ আগস্ট ২০১৯, ১৫:১৭

রাজধানীর কোতোয়ালি থানার নবাবপুর এলাকায় রজব নামে এক ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে তিনজনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছে ট্রাইব্যুনাল। এছাড়া রায়ে সাতজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

কারাদণ্ডের পাশাপাশি তাদের প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও এক বছর কারাদণ্ডের আদেশ দেন ট্রাইব্যুনাল।

বৃহস্পতিবার ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৪ এর বিচারক আবদুর রহমান সরদার এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- রহিম ওরফে আরিফ (পলাতক), জিকু (পলাতক) ও আবু বক্কর সিদ্দিক ওরফে টাইগার (পলাতক)।

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- মন্টি (পলাতক), মিলন ওরফে চাপা মিলন (পলাতক), আকাশ ওরফে রাসেল (পলাতক), ফরহাদ হোসেন ওরফে ফরহাদ (পলাতক), সজীব আহমেদ খান (পলাতক), শহীদ চান খাদেম (পলাতক) ও মোহাম্মদ আলী হাওলাদার বাবু।

সাজাপ্রাপ্ত আসামি মোহাম্মদ আলী হাওলাদারকে সাজা পরোয়ানা দিয়ে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। অপরদিকে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামিদের বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা জারি করেন ট্রাইব্যুনাল। আসামি রাজ কুমার, রুবেল ও শুককুর আলী মিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় বেকসুল খালাস প্রদান করা হয়। ট্রাইব্যুনালের স্ট্যানোগ্রাফার হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

২০১১ সালের ২৪ জুলাই রাতে রাজধানীর কোতোয়ালি থানাধীন নবাবপুরে মোবাইলে টাকা রিচার্জ করতে গেলে আসামিরা পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রজবকে ছুরিকাঘাত করে। ঢাকা মেকিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রজব মারা যান। ওই ঘটনায় রাজধানীর কোতোয়ালি থানায় রজবের ভাই জুম্মন বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

২০১২ সালের ৫ ডিসেম্বর কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক মাহমুদুল হক আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত আজ এই রায় ঘোষণা করেন।

ঢাকাটাইমস/১আগস্ট/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :