পুলিশের রশি টানাটানি: ২৪ ঘণ্টা পর মরদেহ উদ্ধার

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২:০৯

থানা ও রেলওয়ে পুলিশের রশি টানাটানিতে অজ্ঞাত পরিচয় এক নারীর মরদেহ নদীপাড়ে পড়েছিল ২৪ ঘণ্টা। অবশেষে ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের পাগলা থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রেল সেতু দিয়ে ওই নারী শ্রীপুরের কাওরাইদ বাজার থেকে গফরগাঁও উপজেলার গয়েশপুর বাজারে পাড়ি দেয়ার সময় একটি ট্রেন চলে আসে। পরে ওই নারী দ্রুত সেতুর নিচে পাটাতনে আশ্রয় নেয়। পরে সকালে সুতিয়া নদীর পানিতে ওই নারীর মরদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা। এ ঘটনায় গফরগাঁওয়ের পাগলা থানা পুলিশে খবর দেয়া হয়।

গফরগাঁওয়ের গয়েশপুর বাজারের ব্যবসায়ী আসাদুজ্জামান ঢালী জানান, বুধবার ভোরে সুতিয়া নদীর পানিতে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর মরদেহ ভাসতে দেখে কয়েক কিশোর মিলে লাশ পাড়ে তুলে রাখে। পরে খবর পেয়ে পাগলা থানা পুলিশের কয়েক সদস্য ঘটনাস্থলে আসেন। এ সময় পুলিশ জানায়, এটা রেলওয়ে পুলিশের দায়িত্ব। পরে তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

কাওরাইদ বাজারের কাঁচা বাজার ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন জানান, খবর পেয়ে দুপুরেই রেলওয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধারে আসে। পরে মরদেহের কাছে গিয়ে দেখে কোনো আঘাতের চিহ্ন নাই। পরে রেলওয়ে পুলিশ জানায়, নারী ট্রেনের আঘাতে নিহত না হওয়াই এ বিষয়টি স্থানীয় পুলিশের কাজ বলে, পুলিশ চলে যায়।

কাওরাইদ রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার আনোয়ার হোসেন জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে রেলওয়ে পুলিশকে জানানো হয়।

জয়দেবপুর রেলওয়ে পুলিশের এসআই রকিবুল হক বলেন, মরদেহ ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানা এলাকায় হওয়াই তা ওই অঞ্চলের পুলিশ বিষয়টি দেখছে।

পাগলা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফায়েজুর রহমান জানান, সীমানা জটিলার কারণে মরদেহ উদ্ধারে একটু দেরি হয়েছে। বুধবার রাত পৌনে ৮টার দিকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/৪ডিসেম্বর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :