বিপিএলের পারিশ্রমিক নিয়ে মুশফিকের অসন্তোষ

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:৩৫

কাড়ি কাড়ি টাকা খরচ করে বিদেশী ক্রিকেটার প্রতি বছরেই আনে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। এই বছরে আন্দ্রে রাসেল ছাড়া খুব বড় নাম এখনও আসেনি, তবে বিনিয়োগ খুব কমছে না দলগুলোর। অথচ ফ্র্যাঞ্চাইজি পদ্ধতি না থাকায় এই বছর দেশী ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিকও কমিয়ে দিয়েছে বিসিবি। এর আগেও এই বৈষম্য নিয়ে নিজেদের অসন্তোষ জানিয়েছিলেন দেশি ক্রিকেটাররা। বিপিএলে নিজেদের প্রথম ম্যাচের আগে মিরপুরে খুলনা টাইগার্স অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমও বলেছেন, দেশি ও বিদেশিদের বেতনে ভারসাম্য আসা উচিত।

গত অক্টোবরে ক্রিকেটারদের ১৩ দফা দাবির অন্যতম ছিল, বিপিএলে স্থানীয় ও বিদেশিদের মধ্যে ভারসাম্য আনা। ডি ভিলিয়ার্সকে টুর্নামেন্টের অর্ধেক সময় পাওয়ার জন্য গত বছর যেমন রংপুর ৩ কোটি টাকার কাছাকাছি খরচ করেছিল। বাংলাদেশের আইকন ক্রিকেটাররাও গত কয়েক বছরে দর কষাকষি করে নিজেদের বেতন কোটির কাছাকাছি নিতে পেরেছিলেন। তবে এবার সেরকম কিছু হচ্ছে না। ‘এ প্লাস’ ক্যাটাগরির চার ক্রিকেটারের জন্য বিসিবি বেতন নির্ধারণ করে দিয়েছে ৫০ লাখ টাকা। আর ‘এ’ ক্যাটাগরির ক্ষেত্রে সেটি ২৫ লাখ। অথচ এই বছর এ প্লাস ক্যাটাগরির বিদেশি ক্রিকেটাররা পাচ্ছেন ১ লাখ ডলার, বাংলাদেশি টাকায় যা ৮০ লাখের বেশি। আফ্রিদির মতো বুড়িয়ে যাওয়া ক্রিকেটাররাও এবার তাই বেতন পাচ্ছেন মুশফিক, তামিমদের প্রায় দ্বিগুণের কাছাকাছি।

এসব নিয়ে স্থানীয় ক্রিকেটারদের অসন্তোষ একরকম ওপেন সিক্রেট। মুশফিকের কথায় সমালোচনায় আরো বেগ পেল।

খুলনা টাইগার্সের এই অধিনায়ক বলেন, ‘বেতনের ব্যাপারে বরাবরই আমরা অবহেলিত। প্রত্যাশামত আমরা নিজেদের পারিশ্রমিকটুকু পাইনা। এবার তো অনেক তাড়াতাড়ি হয়েছে । লাকিলি এবার খেলাটা হচ্ছে সেটাই অনেক। আমরা নীতি নির্ধারকদের দৃষ্টি আকর্ষন করেছি তারা সেভাবে আশ্বস্ত করেছেন । পরবর্তীতে আমরা বেতন-ভাতা ঠিকঠাক পাবো বলে আশা করছি।’

আফ্রিদি, রুশোদের মতো শুধু ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ খেলে বেড়ানো ক্রিকেটারদের সঙ্গে এত বেতন-বৈষম্য নিয়েও আঙুল তুলেছেন মুশফিক। বলেন, ‘আমরা সারা বছর খেলি, তারপরও দেখা যায় অনেকের থেকে আমরা কম পাচ্ছি, যারা শুধু টি-টুয়েন্টি খেলে। এটা আমাদের জন্য ডিসক্রেডিট। বিশ্বে সব লিগে কিন্তু লোকাল খেলোয়াড়রা বেশি পারিশ্রমিক পান।’  

স্থানীয় খেলোয়াড়দের মধ্যে যে বিপিএলে ধারাবাহিক পারফর্ম করে যাওয়া অনেকে আরও বেশি পারিশ্রমিক পাওয়ার যোগ্যতা রাখে, সেটিও মনে করিয়ে দিয়েছেন খুলনা টাইগার্স কাপ্তান মুশফিক।

তিনি বলেন, ‘বিদেশি ক্রিকেটারদের সাথে ব্যবধান যাতে কম হয় সেটা অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে। শফিউল, রাহি, রাহিদের মত খেলোয়াড়রা রীতিমত পারফর্ম করছে। অথচ তাদের স্থান হয়েছে ‘বি’ কিংবা ‘সি’ ক্যাটাগরিতে। এদের দিকটা দেখলে আমি মনে করি বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্যেই ভাল হবে । বিপিএল ইতিহাসে বাইরের খেলোয়াড় যে খুব বেশি ভাল খেলে তাও কিন্তু নয়। টপ রান বা উইকেটের দিকে তাকান। ক্রিস গেইল ছাড়া কেউ একা ম্যাচ জেতানোর রেকর্ড নাই । আমরা চেষ্টা করেছি তাদের সাথে মিলেমিশে পারফর্ম করতে।’

(ঢাকাটাইমস/১২ ডিসেম্বর/এআইএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :