ড. নেয়ামত উল্যা ভূঁইয়া’র কবিতা

আমার বাগান, আমার স্বদেশ, সোনার বাংলাদেশ

ড. নেয়ামত উল্যা ভূঁইয়া
| আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ২০:৪৩ | প্রকাশিত : ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ২০:২৮

আমার একটি বাগান আছে অরূপ বাগিচায়,

সেই বাগানের জমিন ঢাকা সবুজ গালিচায়।

সেই গালিচায় নকশি আঁকে ঘাস ফুলেরা রঙে,

লাল, বেগুনি, হলদে বরণ ডোরা কাটা ঢংয়ে।

লজ্জাবতীর লতায় লতায় তুলতুলে ফুল হাসে,

একটু ছোঁয়ায় নুইয়ে পড়ে নরম ঘাসে ঘাসে।

ফুল ফুটেছে জুঁই চামেলী গোলাপ চাঁপা বেলী,

ইচ্ছে করে ওদের সাথে মজার খেলা খেলি।

হাওয়ায় দোলা হলদে গাঁদা দেখবে নাকি কেউ?

বাগান জুড়ে তুলছে ওরা হলদে রংগের ঢেউ।

গুনগুনিয়ে মৌমাছিরা গন্ধরাজের কানে,

কোন কথা কয়;মৌমাছি আর গন্ধরাজই জানে।

ফুলে ফুলে প্রজাপতির সই পাতানো খেলা,

বকুল তলায় জমছে নিতুই ঝরা ফুলের মেলা।

গাছে গাছে পাখপাখালির কূজন কলরব,

রূপ সাগরে ডুব দিয়েছে সুখের অনুভব।

শাখায় দোলা ফুলগুলো সব রঙের ধারাপাত,

বোন-সোহাগী ভাইয়ের যেন রাখি বাঁধা হাত।

অরূপ রূপের বাগান জুড়ে রূপের বাহার ফোটে,

সেই বাহারের গল্প শুনি পাখির ঠোঁটে ঠোঁটে।

ঋতুর খেয়ায় কুহু-কেকার মুখর পারাপার,

বসন্ত আর বর্ষা যেনো নিত্য একাকার।

প্রজাপতির পাখায় পাখায় বর্ণে আঁকা ফুলে,

আলো-ছায়ার ঝিকিমিকি ভাবের খেলা খেলে।

সুরের সঙ্গে রংগের যেনো গলায় গলায় ভাব,

ভাবের রঙে আঁকছে রূপের ছবি বেহিসাব।

নানা রঙের ডানা মেলে ফুলপরিরা এসে,

পরীর দেশের স্বপ্ন বোনে সোনা মাটির দেশে।

সারা বাগান জুড়ে যেন মায়ের আঁচল পাতা,

প্রাণ মমতার রাঙা সুতোর নকশী বোনা কাঁথা।

পাখির কূজন, ফুলের শোভার কী আদুরে আবেশ!

আমার বাগান, আমার স্বদেশ, আমার বাংলাদেশ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :