ভারতে মারা যাওয়া চট্টগ্রামের তালিকাভুক্ত ‘সন্ত্রাসী’ কে এই ম্যাক্সন

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
| আপডেট : ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৫০ | প্রকাশিত : ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৫৮

ভারতের কলকাতায় এক নারীর স্বামী পরিচয়ে তার কাছে থাকতেন বাংলাদেশের যুবক নূর নবী ওরফে ম্যাক্সন, যিনি চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী। সম্প্রতি কলকাতায় রহস্যজনকভাবে মারা গেছেন তিনি।

নূর নবী ম্যাক্সনের ভাই আকতার হোসেন জানান, মঙ্গলবার রাতে মারা গেছেন তিনি। বিষয়টি তারা জানতে পারেন বুধবার সকালে। তার মরদেহ বর্তমানে কলকাতার এম আর বঙ্গুর হাসপাতালে রয়েছে বলে জানান আকতার হোসেন।

যেভাবে মৃত্যু

আকতার হোসেন জানিয়েছেন, তার ভাই কলকাতার এক নারীর কাছে থাকতেন। সেখানে ওই নারীর স্বামী পরিচয়ে থাকতেন তিনি। আশ্রয়দাতা নারী এজন্য পাঁচ লাখ টাকা দাবি করেছিলেন।

ম্যাক্সনের পরিবার বাংলাদেশ থেকে চার লাখ টাকা পাঠিয়েছিলেন। আরও এক লাখ টাকা দিতে না পারায় তাকে মদের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে অচেতন করার পর বালিশচাপা দিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। পরে মরদেহ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে দেন ওই নারী।

আকতার জানান, কলকাতায় তাদের এক পরিচিত ব্যক্তির মাধ্যমে এ খবর পেয়েছেন। খবরটি পেয়ে তারা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন বলে জানিয়েছেন আকতার হোসেন। তিনি বলেন, ‘ভিসা পেলে কয়েক দিনের মধ্যে হাসপাতালে গিয়ে মরদেহ দেশে আনার চেষ্টা করব।’

মৃত্যুর বিষয়ে চট্টগাম নগরীর বায়েজিদ বোস্তামী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফেরদৌস জাহান বলেন, ‘নূর নবীর ভাইয়ের কাছ থেকে বিষয়টি শুনেছি।’

তবে সরকারিভাবে কিছুই জানেন না বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

কে এই ম্যাক্সন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী নুর নবী ওরফে ম্যাক্সন। পুলিশের ভাষ্য, তিনি ইসলামী ছাত্রশিবিরের দুর্ধর্ষ ক্যাডার ছিলেন। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র ও চাঁদাবাজির অভিযোগে নগরীর বিভিন্ন থানায় ২২টি মামলা রয়েছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ। এ ছাড়াও একটি অস্ত্র মামলায় তার ২১ বছরের কারাদণ্ডের রায় রয়েছে।

নূর নবী নিজেকে মাছ ব্যবসায়ী পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন কলকাতায় বসবাস করে আসছেন। সেখানে তিনি পরিচয় দিতেন তমাল চৌধুরী নামে। গত ফেব্রুয়ারিতে কলকাতার ডানলপ এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেছিল ভারতীয় গোয়েন্দা পুলিশ। এর পর জামিনে বেরিয়ে এসেছিলেন এই ‘শিবির ক্যাডার’।

(ঢাকাটাইমস/০১ডিসেম্বর/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অপরাধ ও দুর্নীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

অপরাধ ও দুর্নীতি এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :