রাজবাড়ীতে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট, দুর্ভোগে যাত্রীরা

রাজবাড়ী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০২৩, ১৯:৪৬

ফরিদপুরের করিম গ্রুপের গোল্ডেন লাইন পরিবহনরে সঙ্গে বিরোধের জেরে ফের রাজবাড়ী থেকে ঢাকাসহ সব রুটে অনির্দিষ্টকালের জন্য বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে রাজবাড়ী বাস মালিক গ্রুপ।

শনিবার দুপুর ২টার পর থেকে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এদিকে হঠাৎ করে আবার পরিবহন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ যাত্রীরা।

সরেজমিনে রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক সড়কের রাজবাড়ী বড়পুল এলাকায় দেখা যায়, রাজবাড়ী থেকে জেলার বাইরে ও রাজবাড়ীর ওপর দিয়ে যাতায়াতকারী যাত্রীরা মাহেন্দ্র ও ইজিবাইকে চলাচল করছে। এতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে তাদের।

জানা গেছে, রাজবাড়ীর কোনো বাস পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে চলাচল করতে দেয়া হয় না। কিন্তু ফরিদপুরের গোন্ডেন লাইন বাস রাজবাড়ীর ওপর দিয়ে চলাচল করে। এ নিয়ে বিরোধে বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) দুপুরের পর থেকে শুক্রবার (১৬ জুন) সারাদিন রাজবাড়ীতে ঢাকাসহ সব অভ্যন্তরীণ রুটে বাস চলাচল বন্ধ হয়। শুক্রবার রাতে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের আশ্বাসে ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নেয় বাস মালিক গ্রুপ। জেলা প্রশাসক আশ্বাস দেয় যে গোল্ডেন লাইন রাজবাড়ী দিয়ে চলবে না। কিন্তু তারপর আজ রবিবার সকালে ঢাকা থেকে গোল্ডেন লাইন রাজবাড়ীর উদ্দেশে ছেড়ে আসে। তাই আবারও বাস বন্ধ করে ধর্মঘট পালন করছেন শ্রমিকরা।

রাজবাড়ী জেলা বাস মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক ও রাবেয়া পরিবহনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক লিটন বলেন, আমাদের না জানিয়ে হঠাৎ ফরিদপুরের গোন্ডেন লাইনের বাস রাজবাড়ীতে চালানো শুরু করেছে। এতে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি। কেন না রাজবাড়ী থকে ১০ মিনিটের ব্যবধানে ঢাকায় ৫৫টি ট্রিপ আসা-যাওয়া করে। শুক্রবার রাতে জেলা প্রশাসক আমাদের আশ্বস্ত করলে শনিবার সকাল থেকে ডাকা বাস ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়। কিন্তু নিয়মনীতি উপেক্ষা করে গোন্ডেন লাইন ফের চলাচল করছে। তাই বাস মালিকরা দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে অভ্যন্তরীণ রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়। দুপুর ২টা থেকে ঢাকাগামী বাসও চলাচল বন্ধ হয়ে যাবে।

এর আগে গত শুক্রবার রাতে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসন ও পুলিশ সুপারের আশ্বাসে ধর্মঘট প্রত্যাহার করেছিলো বাস মালিক গ্রুপ।

বাস বন্ধের কারণে চরম দুর্ভোগে পরা কয়েকজন যাত্রীর সঙ্গে সড়কে রবিবার দুপুরে কথা হয়।

পাংশা থেকে ঢাকাগামী যাত্রী রুবেল হোসেনের সঙ্গে তিনি বলেন, মালিক সমিতির দ্বন্দ্বের ফল ভোগ করতে হচ্ছে আমাদের মতো সাধারণ মানুষের।

এদের উভয়ের বিরুদ্ধে প্রশাসনের ব্যবস্থা নেয়া উচিত।

রাজবাড়ী থেকে ফরিদপুরগামী প্রিংকা চক্রবর্তী বলেন, মাকে নিয়ে ডাক্তার দেখাতে ফরিদপুর যাচ্ছি। তবে বাস না থাকায় মাহেন্দ্রে গোয়ালন্দ মোড় যেতে হচ্ছে। তারপর আবার কোনো গাড়িতে ফরিদপুর যেতে হবে। দুর্ভোগের সঙ্গে সঙ্গে গাড়ির ভাড়াও বেশি লাগছে।

(ঢাকাটাইমস/১৮জুন/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :