রাজবাড়ীতে পাটক্ষেত থেকে নারীর কঙ্কাল উদ্ধার, আসামি গ্রেপ্তার

রাজবাড়ী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১০ আগস্ট ২০২৩, ১১:৪৩ | প্রকাশিত : ১০ আগস্ট ২০২৩, ১০:০৯

রাজবাড়ীর কালুখালীতে নিখোঁজের ১২ দিন পর পাটক্ষেত থেকে জান্নাতুল নেছা (১৯) নামে এক নারী গার্মন্ট কর্মীর মরদেহের কঙ্কাল উদ্ধারের ঘটনায় হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত মাহফুজ মন্ডল (২১) নামের এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

কালুখালী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রাণবন্ধু চন্দ্র বিশ্বাস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ভিকটিমকে প্রথমে ধর্ষণ করা হয়েছে। পরবর্তীতে তাকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় ভিকটিমের মা বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে আমরা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে মাহফুজ নামের এক যুবককে আটক করেছি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। পরে তাকে আদালতে পাঠানো হলে সে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়।

গ্রেপ্তারকৃত আসামি মাহফুজ মন্ডল উপজেলার বি-কয়া গ্রামের পান্নু মণ্ডলের ছেলে। ভুক্তভোগী জান্নাতুল নেছা (১৯) কালুখালী উপজেলার সাওরাইল ইউনিয়নের পাতুরিয়া গ্রামের আবুল কাশেম ব্যাপারীর মেয়ে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ৪ জুলাই রাত থেকে নিখোঁজ ছিল জান্নাতুল। নিখোঁজের ১২ দিন পর গত ১৭ জুলাই দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কালুখালী উপজেলার সাওরাইল ইউনিয়নের পাতুরিয়া এলাকার সিরাজ মণ্ডলের পাটক্ষেতের ভেতর থেকে একটি মরদেহের মাথার খুলি, চুল ও হাড়সহ বিভিন্ন অংশ ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকা অবস্থায় দেখতে পায় স্থানীয়রা। মরদেহটি শেয়াল অথবা কুকুরে খেয়ে কয়েক টুকরো করে ফেলে। যা দেখে চেনার উপায় ছিল না। পরে স্থানীয়দের সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ এসে মরদেহের কঙ্কাল উদ্ধার করে।

মরদেহের পাশে পড়ে থাকা ভ্যানিটি ব্যাগ, পায়ের স্যান্ডেল, পরিহিত জামা ও ওড়না দেখে পরিবার মৃত জান্নাতুল নেছাকে শনাক্ত করে। পরে ১৮ জুলাই জান্নাতুলের মা নাজমা বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করে।

(ঢাকাটাইমস/১০ আগস্ট/ ইএইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :