ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে চলছে দূরপাল্লার রিকশা

আহমাদ সোহান সিরাজী, সাভার (ঢাকা)
 | প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল ২০২১, ১৮:১৩

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সারাদেশের মতো সাভার এবং ধামরাইয়েও ৫ এপ্রিল সকাল থেকে চলছে সরকার ঘোষিত কঠোর বিধি-নিষেধ। এতে দূরপাল্লা ও আন্তঃজেলার গণপরিবহন চলাচল সীমিত থাকায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে একমাত্র বাহন হিসেবে রিকশার কদর বেড়েছে। মানুষের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করতে রিকশাই এখন একমাত্র অবলম্বন।

তাই ফাঁকা মহাসড়কে দূরপাল্লার যাত্রী নিয়ে চলাচল করছে এসব ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা। আর এতে এখন রিকশাচালকদের পোয়াবারো। সরকারের কঠোর বিধিনিষেধ আরোপের কারণে গণপরিবহনের সংখ্যা সীমিত থাকায় রিকশাচালকদের একচেটিয়া আয় প্রতিদিন কয়েক হাজার টাকা। আর এই লোভে পাড়া-মহল্লায় চালিত রিকশাগুলোও এখন ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে চলাচল করেছে।

সাভার এবং ধামরাইবাসী যানবাহনের অভাবে গন্তব্যে যাতায়াত না করতে পারার কারণে গত কয়েক দিনে মহাসড়কে রিকশার পরিমাণ বাড়তে থাকে। যাত্রীরাও উপায়ন্তর না পেয়ে রিকশায় চলাচল শুরু করে। বর্তমানে রিকশায় যাতায়াত করছে এই অঞ্চলের সরকারি/বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের অফিসগামী কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ শতশত গার্মেন্টস শ্রমিক। এদের এখন অফিসে যাতায়াতে প্রধান বাহন হচ্ছে রিকশা। এছাড়া যানবাহন সীমিত থাকায় বিপদে পড়া লোকজনও বর্তমানে রিকশায় চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে।

এসব মানুষকে পারাপার করতে সড়কে রিকশা বৃদ্ধির সাথে সাথে পাল্লা দিয়ে রিকশাচালকরাও যা ইচ্ছা তাই ভাড়া আদায় করছে সাধারণ যাত্রীদের থেকে। সাভার বাসস্ট্যান্ড থেকে নবীনগরের দূরত্ব ৭.৯ কিলোমিটার বাসভাড়া ১০ টাকা। কিন্তু এক রিকশায় তিনজন হিসেবে জনপ্রতি ভাড়া গুণতে হচ্ছে ৫০ টাকা। ধামরাই ঢুলিভিটা বাসস্ট্যান্ড থেকে সাভার বাজার বাসস্ট্যান্ডের দূরত্ব প্রায় ১৩ কিলোমিটার বাসভাড়া ১৫ টাকা। রিকশায় ভাড়া জোড়া কমপক্ষে ৩০০ টাকা। আবার লোকাল ভাড়া আরো বেশি। রেডিও কলোনি স্ট্যান্ড থেকে সিএন্ডবি স্ট্যান্ডের দূরত্ব মাত্র ২ কিলোমিটার বাসভাড়া পাঁচ টাকা। রিকশায় জোড়া প্রতি ভাড়া নেয়া হচ্ছে ৬০/৭০ টাকা।

এ নিয়ে সোহাগ আহমেদ নামে এক কিশোর রিকশাচালকের সাথে কথা বলে জানা যায় সে সাভারের রেডিও কলোনি থেকে উত্তরা হাউজ বিল্ডিং পর্যন্ত খ্যাপ নিয়ে গিয়েছিল ৭৫০ টাকা চুক্তিতে, আসার সময় ভেঙে ভেঙে যাত্রী নিয়ে এসে পেয়েছে ৪০০ টাকা এতে সে বেজায় খুশি।

এভাবে ভাড়া আদায় করে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত দৈনিক কমপক্ষে ২ হাজার টাকা আয় করছে একাধিক রিকশাচালকের সাথে কথা বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

সাভার হাইওয়ে থানার পরিদর্শক সাজ্জাদ করিম জানান, ‘আমাদের ফোর্স স্বল্পতা থাকায় এবং লকডাউনে জনদুর্ভোগের কথা চিন্তা করে মহাসড়কে চলাচলকারী অটোরিকশার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে কিছুটা শিথিলতা দেখানো হচ্ছে। তবে সেটা নিয়ন্ত্রণে আমরা কাজ করছি।’

(ঢাকাটাইমস/১৩এপ্রিল/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :