কে এই আগা খান?

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১২ জুন ২০২১, ১৭:০৭ | প্রকাশিত : ১২ জুন ২০২১, ১৫:৫৪

ঢাকা-১৪ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দৌড়ে ৩২ জনকে পেছনে ফেলেছেন আগা খান মিন্টু। ক্ষমতাসীন দল থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে লড়তে নিজের মনোনয়ন নিশ্চিত করেছেন তিনি। আগা খান একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা।

শনিবার আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ঢাকা-১৪ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হচ্ছেন আগা খান। প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের সভায় তার এই প্রার্থিতা চূড়ান্ত হয়েছে।

অবিভক্ত ঢাকার প্রথম মেয়র মো. হানিফের সময়ে ১৯৯৪ সালে গাবতলী-মিরপুর এলাকার কমিশনার ছিলেন আগা খান মিন্টু। বৃহত্তর মিরপুর থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতিও ছিলেন তিনি।

স্থানীয় বাসিন্দা আগা খান বর্তমানে শাহ আলী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি।

আসনটির উপ-নির্বাচন ঘিরে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন ৩৫ জন। তাদের মধ্যে মনোয়ার হোসেন ডিপজল ও এখলাস মোল্লার দলীয় কোনো পদ না থাকায় তাদের কাছে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেনি আওয়ামী লীগ। মনোনয়ন কিনেছিলেন ৩৩ জন।

তাদের মধ্যে ছিলেন মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচির মত ‘হ্যাবি ওয়েট’ নেতা। এছাড়া মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল, প্রয়াত আসলামুল হকের স্ত্রী মাকছুদা হক, স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোবাশ্বের চৌধুরী, সংরক্ষিত আসনের সাবেক সংসদ সদস্য সাবিনা আক্তার তুহিনসহ ঢাকা-১৪ আসন এলাকার থানা আওয়ামী লীগের নেতারা।

সবাইকে পেছনে ফেলে দলের মনোনয়ন পেয়েছেন শাহ আলী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আগা খান মিন্টু।

ঢাকা-১৪ আসনটি ঢাকা জেলার সাভার উপজেলার কাউন্দিয়া ইউনিয়ন এবং ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৭, ৮, ৯, ১০, ১১ ও ১২ নং ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত। ২০১৮ সালের হিসাব অনুযায়ী, বিশাল আয়তনের এই আসনে ভোটার সংখ্যা চার লাখ ৬ হাজার ৫৩৪ জন।

আসনটির সাবেক সংসদ সদস্য আসলামুল হকের মৃত্যুতে সংসদের ১৮৭ নম্বর আসনটি শূন্য হয়। শূন্য আসনে উপ নির্বাচনের দিনক্ষণ নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন। প্রথম আগামী ১৪ জুলাই ভোট গ্রহণের দিন ঠিক করা হলেও পরে তা পরিবর্তন করেছে ইসি।

১৪ জুলাই জাতীয় পার্টির সাবেক চেয়ারম্যান হোসাইন মোহাম্মদ এরশাদের মৃত্যু বার্ষিকী হওয়ায় এ দিনে ভোট গ্রহণ নিয়ে ইসিতে আপত্তি জানায় জাপা। পরে আগামী মাসের ২৮ তারিখ ভোট গ্রহণের দিন চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন।

(ঢাকাটাইমস/১২জুন/কারই/কেআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :