অবশেষে বিশ্বব্যাংক...

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৫ জুন ২০২২, ১৬:৫৫ | প্রকাশিত : ২৫ জুন ২০২২, ১৬:৫৪
ছবি: সংগৃহীত

দুর্নীতির অমূলক অভিযোগ তুলে যাদের মুখ ফিরিয়ে নেওয়ার কারণে হোঁচট খেয়েছিল বাঙালির স্বপ্ন পদ্মা সেতু নির্মাণের উদ্যোগ, তারাই আজ অতিথি হয়ে এসেছেন পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। নিজ চোখে দেখে গেলেন বাংলাদেশের নতুন দিগন্তের সূচনা।

শনিবার পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি মিয়াং টেম্বন। বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট ডেভিড ম্যালপাসকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও তিনি আসেননি। তার পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন টেম্বন। পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে মার্সি মিয়াং টেম্বন বাংলাদেশের জনগণকে অভিনন্দন জানান।

২০১১ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি পদ্মা সেতু নির্মাণে ১২০ কোটি মার্কিন ডলারের ঋণ অনুমোদন করে বিশ্বব্যাংক। একই বছরের ২৮ এপ্রিল সরকারের সঙ্গে তাদের ঋণচুক্তি হয়। পরবর্তী সময়ে এডিবির সঙ্গে ৬১ কোটি ৫০ লাখ ডলার, জাইকার সঙ্গে ৪০ কোটি ডলার এবং আইডিবির সঙ্গে ১৪ কোটি ডলারের ঋণচুক্তি সই হয়।

এ প্রকল্পে সরকারের নিজস্ব অর্থায়ন করার কথা ছিল ৫৬ কোটি ডলার। অর্থায়ন চুক্তি শেষে দরপত্র প্রক্রিয়া শুরু হলে পদ্মা সেতু প্রকল্পে তদারকি পরামর্শক নিয়োগে দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তোলে বিশ্বব্যাংক এবং ২০১১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে এ প্রকল্পে অর্থায়ন স্থগিত করে। এ নিয়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনা চলমান অবস্থায় ২০১২ সালের ২৯ জুন এ প্রকল্পে ঋণচুক্তি বাতিল করে বিশ্বব্যাংক। পরে সরকারের সঙ্গে আলোচনার অগ্রগতি হওয়ায় একই বছরের ২০ সেপ্টেম্বর বেশ কিছু শর্ত দিয়ে পদ্মা সেতু প্রকল্পে নতুন করে সম্পৃক্ত হওয়ার ঘোষণা দেয়। তবে সরকার শেষ পর্যন্ত বিশ্বব্যাংককে ‘না’ বলে নিজস্ব অর্থায়নে সেতু নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়।

(ঢাকাটাইমস/২৫ জুন/ওএফ/এফএ/ডিএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :