চকবাজারের শোক বই মেলায়

আল আমিন রাজু, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:০৮ | প্রকাশিত : ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:০৪

আজ অমর একুশে ফেব্রুয়ারি। আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস। একুশে ফেব্রুয়ারি বাঙালি জাতির শোকের দিন। এই দিনটি বাঙালিরা শ্রদ্ধার সঙ্গে ভাষা শহীদদের স্মরণ করে আসছে। এবারের একুশে ফ্রেব্রুয়ারির শোক আরও বড় হয়ে এলো। গতকাল রাত সাড়ে ১১টায় রাজধানীর পুরান ঢাকার চকবাজার ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ইতোমধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ৭০জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৪১জন। যাদের চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলেন জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

আগুনে ৭০ জন নিহতসহ শতাধিক আহত হওয়ার ঘটনায় সারা দেশের ন্যায়ে বই মেলায়ও বইছে সেই শোকের আবহ।

প্রতি বছর সকাল থেকে বই মেলায় উপচে পড়া ভিড় থাকে। সবাই শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানিয়ে সোজা চলে আসেন বই মেলায়।  এবার একুশে ফেব্রুয়ারিতে বইমেলায় সকাল থেকে একে বারেই ভিন্ন চিত্র।

সকাল ১১ টা পর্যন্ত বই মেলায় ঘুরে দেখা যায় হাতে গোনা কয়েকজন দশনার্থী ছাড়া বলার মত কোনো দর্শকের দেখা  মেলেনি। স্টলগুলো একুশের ফেব্রুয়ারি উপলক্ষ্যে সকাল সাড়ে ৮ টা থেকে মেলা সকলেও জন্য খুলে দেয়া হলেও দর্শক খরায় বই মেলা।

তবে মেলায় আসা হাতে গোনা দর্শকদের মধ্যে মেলায় দর্শক শূন্যতার জন্য গতকালে ঘটনাকে দায়ি মনে করেন না।

শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানিয়ে মেলায় এসেছেন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করা অমিত রঞ্জন দে তিনি বলেন, পুরান ঢাকার শোক হয়তো মেলায় পড়েছে। তবে আমি পুরোটা মানতে নারাজ। কারণ মেলায় দর্শক শুন্যতার জন্য সবচেয়ে বেশি দায়ি আমাদের চেতনা। দিনদিন আমাদের মাঝ থেকে বাঙালিত্ব, বাংলা ভাষার প্রতি দরদ হারিয়ে যাচ্ছে। আর তাই তো ১৪ ই ফ্রেব্রুয়ারি বই মেলায় রঙিন পোশাকে ভিড়ে হাটা যায় না। আর আজ মেলায় বই কেনার মত একটি মানুষ খুজে পাওয়া যাচ্ছে না।

দিনদিন চেতনার দিক দিয়ে আমরা  দুর্বল হয়ে যাচ্ছি।

ঢাকাটাইমস/২১ফেব্রুয়ারি/ওআর

  

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :