জি কে শামীম ১০ দিনের রিমান্ডে

আদালত প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২০:৫৬

বিপুল পরিমাণ অর্থ, অস্ত্র ও মাদকসহ গ্রেপ্তার কথিত যুবলীগ নেতা জি কে শামীমকে ১০ দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ। সঙ্গে তার সাত দেহরক্ষীর রিমান্ডও মঞ্জুর করেছে আদালত।

শনিবার সন্ধ্যায় ঢাকার মহানগর হাকিম বেগম মাহমুদা আক্তার এই রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেন।

দুই মামলায় জি কে শামীমকে পাঁচ দিন করে ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। আর তার সাত দেহরক্ষীকে অস্ত্র মামলায় চার দিনের রিমান্ডে পাঠানো হয়েছে।

দেহরক্ষীরা হলেন- দেলোয়ার হোসেন, মুরাদ হোসেন, জাহিদুল ইসলাম, সহিদুল ইসলাম, কামাল হোসেন, সামসাদ হোসেন ও আমিনুল ইসলাম।

এর আগে বিকালে গুলশান থানায় তাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক ও মানিলন্ডারিং আইনে পৃথক তিনটি মামলা হয়।

দুপুরের পর জি কে শামীম ও তার সাত দেহরক্ষীকে গুলশান থানায় নিয়ে আসেন র‌্যাব সদস্যরা। সেখানে তাদের রাখা হয় থানাহাজতে। পরে তাদের নিয়ে যাওয়া হয় আদালতে।

শুক্রবারের অভিযানে শামীমের নিকেতনের অফিস থেকে এক কোটি ৮০ লাখ নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়। এছাড়া ১৬৫ কোটি টাকার ওপরে এফডিআর (স্থায়ী আমানত) পাওয়া যায়, যার মধ্যে তার মায়ের নামে ১৪০ কোটি ও ২৫ কোটি টাকা তার নামে। পাওয়া যায় মার্কিন ডলার, মাদক ও আগ্নেয়াস্ত্র।

চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজির অভিযোগ থাকা রাজধানীর সবুজবাগ, বাসাবো, মতিঝিলসহ বিভিন্ন এলাকায় প্রভাবশালী ঠিকাদার হিসেবে পরিচিত যুবলীগ নেতা শামীমকে ধরতে শুক্রবার ভোর ৬টা থেকে সাদা পোশাকে শুরু হয় র‌্যাবের অভিযান। বিকাল সাড়ে ৪টায় অভিযান শেষে শামীমসহ আটজনকে আটক করার কথা জানায় র‌্যাব।

জি কে শামীম যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে তথ্য এসেছে। যদিও সংগঠনটির চেয়ারম্যান দাবি করেছেন, তিনি যুবলীগের কেউ নন। আবার তিনি নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের নেতা বলেও প্রচার আছে। যদিও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ থেকে বলা হয়েছে, নারায়ণগঞ্জে এই নামে তাদের কোনো নেতা নেই। এক সময় যুবদল করা জি কে শামীমের রাজনৈতিক পরিচয় নিয়ে দেখা দিয়েছে ধোঁয়াশা।

(ঢাকাটাইমস/২১সেপ্টেম্বর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :