পেসারদের নিয়ে বিপাকে নির্বাচকেরা

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১২:১৭

ক’দিন বাদেই শুরু ভারত সফরে যাবে বাংলাদেশ। চূড়ান্ত দলও ঠিক হয়ে গেছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ১৮ অক্টোবর ঘোষণা করা হবে টাইগার স্কোয়াড। তবে বিপত্তি দেখা গেছে অন্য জায়গায়। নির্বাচকদের ভাবিয়ে তুলছে পেসারদের চোট সমস্যা। এমনিতেই ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপ ভাঙার মত শক্তিশালী বোলার বাংলাদেশে খুবই কম আছে, যারা আছে তারাও চোট সমস্যায় জর্জরিত।

গতকাল(১৫ অক্টোবর) মিরপুরে আসেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের দুই নির্বাচক হাবিবুল বাশার ও মিনহাজুল আবেদীন। এবার আর প্রাথমিক দল নয়, টেস্ট- টি-টোয়ন্টির জণ্য একেবারে ১৪/১৫ জনের দল ঘোষণা করবে বোর্ড। যার কারণে নির্বাচকদের এতো ব্যস্ততা।

আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। সাক্ষাৎকারের সময় বাংলাদেশের পেসারদের চোট সমস্যা নিয়ে মুখ খোলেন নান্নু। তিনি বলেন, ‘গত ছয় মাস ধরে আমরা পেসারদের নিয়ে যথেষ্ট শঙ্কায়ি আছি। এখন এমন একটি অবস্থা দাঁড়িয়েছে যে, অনেক পেসার ইনজুরিতে ভুগছে। যদি দশ জনের একটি তালিকা করি, দেখা যাবে তাদের মধ্যে পাঁচ জনই ইনজুরিতে। অনেক তরুণ খেলোয়াড় আছে তারাও ইনজুরিতে ভুগছে।’

ভারতের ব্যাটিং লাইন আপ ভাঙার মতো শক্তিশালী বোলিং বিভাগ বাংলাদেশের নেই। যারা আছেন তারা সবাই মোটামুটি চোটাগ্রস্ত। এর মাঝে ফিটনেস সমস্যাও বড় একটি ব্যাপার। ফিটনেস সমস্যার কারণে এনসিএলে মোস্তাফিজকে নিয়ে এতো বাড়দি সতর্কতা। চোট কাটিয়ে মাঠে ফিরতে পারেন নি তাসকিন আাহমেদও। আবার টেস্ট খেলার ফিটনেস নেই সাইফুদ্দিনেরও।

ফিটনেস সমস্যার সমাধান কোথায়? জবা্বে প্রধান নির্বাচক নান্নু বলেন, ‘আমাদের পেস বোলার নিয়ে সবসময় একটি প্রশ্ন আসে যে তাদের ফিটনেস আছে কী না! এখন প্রথম শ্রেনির ক্রিকেট থেকে যেভাবে আমরা খেলোয়াড়দের ফিটনেস নিয়ে কাজ করছি, আশা করা যায় এক থেকে দুই বছরের মধ্যে আমরা ইতিবাচক ফল পাবো।’

নান্নু আরো বলেন, ‘আমি মনে করি, আমাদের বোলারদের ফিটনেসের উন্নতি করার সক্ষমতা রয়েছে এবং আমাদের কোচেও এ ব্যাপারে কাজ করছেন।’

(ঢাকাটাইমস/১৬ অক্টোবর/এআইএ)  

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :