জঙ্গিবাদ নিয়ে মাহবুবের বিশ্লেষণমূলক বই

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৭ আগস্ট ২০২১, ১৬:০২ | প্রকাশিত : ২৫ আগস্ট ২০২১, ১৮:০৫

জঙ্গিবাদ নিয়ে প্রকাশিত হলো বিশ্লেষণমূলক বই ‘জঙ্গীবাদ: বৈশ্বিক সংকট ও প্রতিকার।' বইটিতে জঙ্গিবাদ প্রতিকারে দেশের সাফল্য যেমন আলোচিত হয়েছে তেমনি বিশ্লেষণে এসেছে জঙ্গিবাদ প্রতিকারের ফ্রেমওয়ার্ক। এর মাধ্যমে বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে সংঘটিত জঙ্গিবাদ অনুধাবন করে প্রতিকারমূলক কৌশল গ্রহণ করা যাবে বলে মনে করেন বইটির লেখক মাহবুব।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর পুরকৌশল বিভাগের স্নাতক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাধবিজ্ঞান বিভাগের স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থী মাহবুব।

জঙ্গিবাদের মতো স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে বিশ্লেষণধর্মী বই লেখার বিষয়ে তার ভাষ্য, কে জঙ্গি আর কে আদর্শিক যোদ্ধা এ বিষয়ে জাতিসংঘের রাষ্ট্রসমূহ একমত হতে পারেনি। কারণ একজনের দৃষ্টিতে যে জঙ্গি, অন্যজনের দৃষ্টিতে সে হতে পারে একজন আদর্শিক যোদ্ধা। তাই নির্মোহভাবে জঙ্গিবাদের বিশ্লেষণ করা অত্যন্ত জরুরি। এই বিতর্কিত বিষয় নিয়ে প্রায় দেড় বছর লেগেছে গ্রন্থটি লিখতে; সংযুক্ত জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি পড়তে লেগেছে প্রায় দশ বছর।

বইটির বিষয়বস্তু তুলে ধরে তিনি বলেন, এতে জঙ্গিবাদকে বিভিন্ন আঙ্গিক থেকে পর্যালোচনা করা হয়েছে। যেমন- যারা জঙ্গির সংজ্ঞা দিচ্ছে, তারাই আবার নির্যাতনের দায়ে অভিযুক্ত কি না? কোন কোন ঘটনা বিশ্বব্যাপী জঙ্গিবাদকে উৎসাহিত করেছে? জঙ্গিবাদ নির্মূল করা কেন জটিল ও সময়সাপেক্ষ? নারীরাও কেন জঙ্গিবাদে জড়ায় প্রভৃতি।

লেখক আরও বলেন, অনেকে জঙ্গিবাদকে ধর্মীয় বিষয় বলে মনে করেন। অথচ এর সঙ্গে সাম্যবাদী বামপন্থা ও শ্রেষ্ঠত্ববাদী ডানপন্থা কীভাবে সংযুক্ত, তা গ্রন্থে বিস্তারিত পর্যালোচনা করা হয়েছে। গ্রন্থটির হাইপোথিসিসঃ ‘জঙ্গীবাদের সঙ্গে ধর্ম নয় বরং রাজনীতি সংযুক্ত।’ বইয়ের প্রতিটি অধ্যায়ে এটি ইতিহাস, আন্তর্জাতিক রাজনীতি, ভৌগলিক অবস্থান ও মতাদর্শের মাপকাঠিতে বিশ্লেষণ করা হয়েছে। গ্রন্থটি প্রকাশের পর এই ভূখণ্ডে জঙ্গিবাদকে ধর্মের সাথে গুলিয়ে উপস্থাপনের সুযোগ সীমিত।

সম্পূর্ণ রঙিন ৩২০ পৃষ্ঠার বইটিতে করোনাকালে অনলাইন প্লাটফর্ম ব্যবহার করে জঙ্গিদের কার্যক্রমের বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে। এছাড়া, এতে ইন্টারনেটে জঙ্গিবাদের ব্যাপ্তি ও পশ্চিমা শ্রেষ্ঠত্ববাদী জঙ্গিবাদের পারস্পরিক সম্পর্ক স্থাপনের মাধ্যমে পৃথিবীর দুই হাজার বছরের ইতিহাস একসূত্রে গাঁথা হয়েছে।

লেখকের বিশ্বাস, জঙ্গিবাদ নিয়ে লেখা বইটি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যসহ অন্যান্য পেশাজীবীদের কাজে আসবে।

বইটি সংগ্রহ করতে চাইলে [email protected] ইমেইলে আগ্রহ প্রকাশ করাই যথেষ্ট।

(ঢাকাটাইমস/২৫আগস্ট/বিইউ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :