নিউজিল্যান্ডকে ৩৩২ রানের লক্ষ্য দিলো টাইগাররা

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ০১ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৩:০১

সিলেট টেস্টে তৃতীয় দিনে ৩ উইকেট হারিয়ে ২১২ তোলা বাংলাদেশ বাংলাদেশ চতুর্থ দিনে সবকটি উইকেট হারিয়ে দলের খাতায় যোগ করেছে ১২৬ রান। যার ফলে চতুর্থ দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩৩৮ রান। এর মধ্যে বাংলাদেশের লিড দাঁড়ায় ৩৩১ রান। জয়ের জন্য কিউইদের দরকার ৩৩২ রান।

চতুর্থ দিনের প্রথম ওভারে মাত্র ১ রান নেন শান্ত। এর পরের ওভারেই টিম সাউদির বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান শান্ত। তার বিদায়ে দিনের শুরুতেই উইকেট হারালো টাইগাররা।

শান্তর বিদায়ের পর শাহাদাত হোসেন দীপুকে নিয়ে জুটি গড়েন মুশফিক। ইতোমধ্যে কিউইদের বিপক্ষে তিনি তুলে নিয়েছেন ব্যক্তিগত অর্ধশতক। কিউইদের বিপক্ষে আজ তিনি ৭৯ বলে তুলে নেন ৫০ রান। টেস্ট ক্যারিয়ারে এটি তার ২৭ তম অর্ধশতক।

তবে এই জুটিও বেশিদূর এগোতে পারেনি। দলীয় ২৪৮ রানে দীপুর বিদায়ে ভেঙে যায় এই জুটি। ১৯ বলে ১৮ রান করে ইস সোধির বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফিরে যান দীপু।

শাহাদাত হোসেন দীপুর পর ফিরে যান মুশফিকও। সেঞ্চুরির আশা জাগানো মুশফিক এজাজ প্যাটেলের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে ফিরে যান প্যাভিলিয়নে। আউট হওয়ার আগে করেন ১১৬ বলে ৬৭ রান।

মুশফিকের বিদায়ের পর জুটি গড়েন মেহেদেী হাসনি মিরাজ ও নুরুল হাসান সোহান। তবে এই জুটিও বেশিদূর এগোতে পারেনি। ২৭ বলে ১০ রান করে গ্লেন ফিলিপসের শিকার হয়ে সোহান সাজঘরে ফিরে গেলে ভেঙে যায় এই জুটি।

সোহানের বিদায়ের পর নাঈম হাসানকে নিয়ে জুটি গড়েন মিরাজ। এই জুটিতে ভর করে লিড ৩০০ পার করে লাঞ্চ বিরতিতে গেছে বাংলাদেশ। ৯৪ ওভারে ৩০৮ রান করে লাঞ্চ বিরতিতে যায় টাইগাররা। এরমধ্যে বাংলাদেশের লিড পার হয়েছে ৩০০।

লাঞ্চ বিরতি থেকে ফিরে নিজের ইনিংসকে বেশিদূর নিয়ে যেতে পারেননি নাঈম হাসান। ১১ বলে মাত্র ৪ রান করে ইস সোধির বলে টম লাথামের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফিরে যান সাজঘরে।

নাঈমের পথ ধরে সাজঘরে ফিরে যান তাইজুল ইসলামও। ৬ বলে শূন্য রান করে এজাজ প্যাটেলের বরে মিড অনে হেনরি নিকোলসের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফিরে যান সাজঘরে।

দশম উইকেটে মিরাজ ও শরিফুলের ২৬ রানের জুটিতে ভর করে ৩৩৮ রান তুলতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। যার ফলে বাংলাদেশের লিড দাঁড়ায় ৩৩১ রান। জয়ের জন্য কিউইদের দরকার ৩৩২ রান।

এর আগে সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে কিউইদের বিপক্ষে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম ইনিংসে ৩১০ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। স্বাগতিকদের হয়ে ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয় সর্বোচ্চ ৮৬ রান করেন। এছাড়া অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত-মুমিনুল হক ৩৭ রান করে, নুরুল হাসান ২৯, অভিষেক হওয়া শাহাদাত হোসেন ২৪ ও মেহেদি হাসান মিরাজ ২০ রান করেন। সফরকারীদের হয়ে পার্ট-টাইমার গ্লেন ফিলিপস সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন। কাইল জেমিসন-এজাজ প্যাটেল দুটি করে এবং ইশ সোধি ও সাউদি একটি করে উইকেট নেন।

জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৩১৭ রান তুলেছে সফরকারীরা। দ্বিতীয় দিনেই ব্যাটিংয়ে নেমে ধুঁকতে থাকা নিউজিল্যান্ড শেষ পর্যন্ত লিড পায় ৭ রানের। বিরুদ্ধ কন্ডিশনে বাকি ব্যাটারদের আসা-যাওয়ার বিপরীতে একপ্রান্ত আগলে রেখে অনবদ্য সেঞ্চুরি তুলে নেন সাবেক কিউই অধিনায়ক কেইন উইলিয়ামসন। শেষ পর্যন্ত সাজঘরে ফেরার আগে করেন ২০৫ বলে ১০৪ রান। চলিশোর্ধ্ব রানের ইনিংস রয়েছে গ্লেন ফিলিপস ও ড্যারিল মিচেলের। শেষ দিকে টিম সাউদির ৬২ বলে ৩৫ ও কাইল জেমিসনের ৭০ বলে ২৩ রানের সুবাদে লিড পায় কিউইরা।

(ঢাকাটাইমস/০১ ডিসেম্বর/এনবিডব্লিউ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

খেলাধুলা এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :