রাণীনগরে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

রাণীনগর (নওগাঁ) প্রতিবেদক
 | প্রকাশিত : ০৭ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:৩৮

নওগাঁর রাণীনগরে নাছিমা বেগম নামে দুই সন্তানের জননীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে। রবিবার রাতে উপজেলার গোনা ইউনিয়নের ঘোষগ্রাম সৌদিপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে সোমবার সকালে রাণীনগর থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

নিহত নাছিমা উপজেলার গোনা ইউনিয়নের পিরেরা গ্রামের নবাব আলীর ওরফে লবা সরদারের মেয়ে। তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে এলাকায় গুঞ্জন।

জানা গেছে, ২০০৪ সালে একই উপজেলার ঘোষগ্রাম সৌদিপাড়া গ্রামের আতুল প্রাংয়ের ছেলে এলাহী বক্সের সঙ্গে নাছিমার বিয়ে হয়। কিন্তু কিছু দিন ধরে অন্য এক নারীর সঙ্গে এলাহী বক্সের সম্পর্ক। নাছিমা এর প্রতিবাদ করে। এ জন্য এলাহী তাকে প্রায় মারধর করতো। রবিবার রাতে আবার বেদম মারধর করলে নাছিমা অচেতন হয়ে  পড়ে।  

অভিযোগ, এরপরই এলাহী ও তার পরিবারের লোকজন নাছিমার গলায় রশি লাগিয়ে ঘরের তীরের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে। সকালে গলা থেকে রশি খুলে চিকিৎসার নামে রাণীনগর হাসপাতালে নিয়ে যেতে চাইলেও মাঝপথ থেকে আবার বাড়িতে ফেরত নিয়ে আসে। এরপর থেকে নাছিমার স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক।

নিহত নাছিমার বড় ভাই আসাদুল ইসলামের অভিযোগ, ‘আমার বোনকে তার স্বামী পিটিয়ে হত্যা করে গলায় রশি ঝুলিয়ে লোক দেখানোর ভান করছে। এটাকে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দিতে চাইছে। আগে থেকেই আমার বোনকে তারা নির্যাতন করতো। এখন তারা পলাতক। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।’

এ ব্যাপারে রাণীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারেকুর রহমান সরকার বলেন, ‘মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এটা হত্যা না আত্মহত্যা তা প্রতিবেদন পেলেই জানা যাবে। এরপর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় একটি ইউডি মামলা করা হয়েছে।’

ঢাকা টাইমস/৭ জানুয়ারি/প্রতিবেদক/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :