ধারের টাকা পরিশোধে পেটে ইয়াবা বহন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:৫০ | প্রকাশিত : ০২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:৪৭

মোহাম্মদ শাহীন। গাজীপুরের টঙ্গীতে একজনের কাছ থেকে ধার নিয়েছিলেন ৪০ হাজার টাকা। সময়মতো টাকা পরিশোধ না করায় তাকে দেওয়া হচ্ছিল হুমকি। সবশেষ টাকা পরিশোধে শাহীনকে কক্সবাজার থেকে রাজধানীতে ইয়াবার একটি চালান বহন করতে বলা হয়। চালানটি ঢাকায় আনলে নেওয়া হবে না ধারের টাকা। প্রস্তাবে রাজি হন শাহীন।

রবিবার রাতে তিন হাজার পিস ইয়াবা পেটে বহন করে নভোএয়ারের একটি ফ্লাইটে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় আসেন তিনি। বিমানবন্দরের সামনে গাড়ির জন্য অপেক্ষার সময় তাকে আটক করে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন। পরে ১৫ ঘণ্টা চেষ্টার পর তার পেট থেকে ইয়াবা বের করা হয়। গ্রেপ্তারের পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে এসব তথ্য জানিয়েছেন শাহিন।

বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপস অ্যান্ড মিডিয়া) আলমগীর হোসেন ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘গ্রেপ্তার শাহীন টঙ্গীর চেরাগ আলী নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৪০ হাজার টাকা ধার নিয়েছিলেন। সেই টাকা মাফ করতে শাহীনকে পেটে ইয়াবার চালান বহন করতে বলা হয়। রাত সাড়ে ১০টার দিকে শাহীন বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের বহিগামী রাস্তার গাড়ি পার্কিংয়ে ঘোরাফেরা করছিলেন। এ সময় তার গতিবিধি সন্দেহজনক হলে তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে শাহীন তার পেটে ইয়াবা থাকার কথা স্বীকার করেন। তার পাকস্থলী থেকে ইয়াবা বের করতে প্রায় ১৫ ঘণ্টা সময় লাগে।’

এর আগে শাহীন নভোএয়ারের একটি ফ্লাইটে কক্সবাজার থেকে ইয়াবার চালান ঢাকায় নিয়ে আসেন বলে জানান আর্মড পুলিশের এই কর্মকর্তা।

(ঢাকাটাইমস/০২ডিসেম্বর/এসএস/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :