ক্যানসার প্রতিরোধ করে জাফরান

স্বাস্থ্য ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৫৯

জাফরান বিশ্বের সর্বাপেক্ষা মূল্যবান দামী মসলা । এদের বেশির ভাগ ইরানে জন্মায়। অটাম ক্রকাস নামের আইরিশ গোত্রের একটি ফুলের গর্ভদন্ড থেকে উৎপাদন করা হয় জাফরান। এক অজানা কারণে জাফরান ফল তৈরি করতে পারে না। যার ফলে এটা বংশ বিস্তারের জন্য মানুষের সাহয্য প্রয়োজন হয়। ক্রোমগুলি মাত্র এক বছর পর্যন্ত বেঁচে থাকে এবং এর মধ্যেই এই ক্রোমগুলোকে মাটিতে রোপন করতে হয়।

জাফরান ফুলের পাপ‌ড়ি বেগুণী র‌ঙের হয়। এর ভিত‌রে থা‌কে লম্বা পরাগ দন্ড। এ দন্ডের রঙ হলুদ এবন কমলা মিশ্রনে জাফরা‌নি বর্ণের হয়। প‌রিণত ফুল শুকা‌লেই এর দন্ড মশলা হি‌সে‌বে ব্যবহৃত হয়।

বিরিয়ানিতে রঙের জন্য জাফরান ব্যবহার করা হয়। পায়েস সুস্বাদু করার জন্য বা বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য ছাড়াও দামি প্রসাধন সামগ্রী হিসেবে জাফরান ব্যবহার্য।

প্রাচীনকালে জাফরান গায়ে মাখা হতো শরীরের সৌষ্ঠব বাড়ানোর জন্য। ত্বক এর গুণে লাবণ্যময় হয়ে ওঠে। এ ছাড়া নানা রোগেও জাফরানের বহুমাত্রিক ব্যবহার লক্ষ করা যায়। জাফরানে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও প্রয়োজনীয় ভিটামিন, যা আপনাকে বিভিন্ন রোগ থেকে মুক্তি দেয়।

সম্প্রতি জাপানের কয়েক জন বিজ্ঞানী মানুষের শরীরে জাফরানের প্রভাব নিয়ে একটি গবেষণা চালিয়েছেন, দেখা গিয়েছে, জাফরানের মধ্যে ক্যারোটিন জাতীয় উপাদান থাকে। এটির নাম ক্রোসিন। এই ক্রোসিন মানুষের শরীরে দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব ফেলতে পারে।

গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ক্যানসারের কোষের উপর এই ক্রোসিন প্রভাব ফেলতে পারে। এবং সেটি মানুষের জন্য লাভের। কারণ এই ক্রোসিন ক্যানসারের কোষবৃদ্ধি আটকাতে পারে। বিশেষ করে রক্ত, জরায়ু এবং খাদ্যনালীর ক্যানসার প্রতিহত করতে পারে এই উপাদানটি।

জাপানের বিজ্ঞানীরা পরিসংখ্যান দিয়ে দেখিয়েছেন, যারা নিয়মিত জাফরান খান, তাদের ক্যানসারের আশঙ্কা কিছুটা কমে।

জাফরানের আরও অনেক গুণ রয়েছে। যেমন জাফরানের কিছু উপাদান স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। দুধের সঙ্গে জাফরান মিশিয়ে খেলে রোগপ্রতিরোধ শক্তি বাড়ে।

জাফরানে রয়েছে পটাশিয়াম যা উচ্চ রক্ত চাপ ও হৃদপিণ্ডের সমস্যা জনিত রোগ দূর করে। পুরুষত্বহীনতা, অকাল বীর্যপাত ও লিঙ্গ উথান সমস্যা দূর করে সুস্থ যৌনজীবন দেয় জাফরান৷ হজমে সমস্যা এবং হজম সংক্রান্ত যে কোনও ধরনের সমস্যা দূর করতে সহায়তা করে জাফরান।

জাফরানের পটাশিয়াম আমাদের দেহে নতুন কোষ গঠন এবং ক্ষতিগ্রস্ত কোষ সারিয়ে তুলতে সহায়তা করে। জাফরানের নানা উপাদান আমাদের মস্তিষ্ককে রিলাক্স করতে সহায়তা করে, এতে করে মানসিক চাপ ও বিষণ্ণতা জনিত সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়৷

গবেষণায় দেখা যায় জাফরান দৃষ্টিশক্তি উন্নত করতে এবং চোখের ছানি পড়া সমস্যা প্রতিরোধে কাজ করে৷ জাফরানের অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান বাতের ব্যথা, জয়েন্টে ব্যথা, মাংসপেশির ব্যথা এবং দুর্বলতা দূর করতে অব্যর্থ ঔষুধ৷

জাফরান দেহের কলেস্টোরল এবং ট্রাইগ্লিসারাইড নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে।

মস্তিস্কের গঠন উন্নত করতে জাফরানের ভূমিকা অনস্বীকার্য। জাফরান স্মৃতিশক্তি এবং চিন্তা ক্ষমতা উন্নত করে৷ এছাড়াও আলজাইমার এবং পার্কিনসন রোগ থেকে দূরে রেখে অক্সিডেটিভ স্ট্রেস থেকে কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রকে বাঁচায়৷

কিডনি, যকৃৎ এবং মুত্রথলির রোগ থেকে মুক্তি দেয় জাফরান৷ টিউমারের রোধ বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে৷

(ঢাকাটাইমস/১৫ সেপ্টেম্বর/আরজেড/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :