গাজায় ‘নিরাপদ অঞ্চল’ অসম্ভব, ইসরায়েল সব জায়গায় হামলা করছে: জাতিসংঘ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৩:২৭

অবরুদ্ধ ফিলিস্তিনের গাজায় মানবিক সংকট প্রবল থেকে প্রবল হয়ে উঠছে। গাজার দক্ষিণেও ইসরায়েলের কথিত নিরাপদ অঞ্চল গঠন অসম্ভব হয়ে পড়ছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

জাতিসংঘের এক মুখপাত্রের বরাতে আল জাজিরা জানায়, গাজার দক্ষিণে নিরাপদ অঞ্চল প্রতিষ্ঠার কোনো যৌক্তিক ভিত্তি নেই। ইসরায়েলের হামলায় গাজার কোনো অংশই নিরাপদ নয়। ইসরায়েলি বাহিনী গাজার দক্ষিণেও লোকালয়, হাসপাতাল, স্কুল ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে হামলা করছে।

ইসরায়েলের সেনাপ্রধান হারজি হালেভি বলেছেন, যুদ্ধ শুরুর দুই মাস পর আমরা দক্ষিণ গাজার খান ইউনিস শহর ঘিরে ফেলতে সক্ষম হয়েছি।

জাতিসংঘ রিলিফ অ্যান্ড ওয়ার্ক এজেন্সির মুখপাত্র আদনান আবু হাসান বলেছেন, দক্ষিণ গাজায় খান ইউনিস এলাকা থেকে বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশনায় আরও কয়েক হাজার পরিবার বাস্তচ্যুত হবে। রাফা সীমান্তে শরণার্থী সংখ্যা দশ লাখ ছাড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করে তিনি বলেন, ইসরায়েলি সৈন্যরা গাজার বাসিন্দাদের দক্ষিণে সীমান্তে ঠেলে দিচ্ছে।

গাজায় প্রয়োজনীয় ত্রাণ সামগ্রীর সংকটের কথা উল্লেখ্য করে জাতিসংঘের রিলিফ এজেন্সির এই মুখপাত্র বলেন, প্রতিদিন ৫০ থেকে ৭০ ট্রাক ত্রাণ গাজায় প্রবেশ করছে। কিন্তু তা পর্যাপ্ত নয়।

এদিকে ইসরায়েলকে থামাতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ইরাক। ইরাকের প্রেসিডেন্ট আব্দুল লতিফ রশিদ বাগদাদে নিযুক্ত ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে এক বৈঠকে বলেছেন, ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের আগ্রাসন বন্ধ করতে বিশ্বব্যাপী প্রচেষ্টা চালানো উচিত। তিনি বলেন, অবরুদ্ধ গাজা ‍উপকূলে মানবিক সহায়তা দেবে ইরাক।

এছাড়া জর্ডানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণায়ল এক বিবৃতি বলেছে, পূর্ব জেরুজালেমে বসতি স্থাপন আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন। ইসরায়েলের এসব পদক্ষেপ যুদ্ধাপরাধের সমান। এটি আঞ্চলিক শান্তি প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টাকে বিপন্ন করে তুলছে।

(ঢাকাটাইমস/০৫ডিসেম্বর/এসআইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :