বৌভাতে কনে তুলে নেয়ার চেষ্টা, ছাত্রলীগ নেতা আসামি

কুমিল্লা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:০৬

কুমিল্লার দেবীদ্বারে বৌভাত অনুষ্ঠানে হামলা চালিয়ে নববধূকে তুলে নেয়ার চেষ্টার ঘটনায় নিমসার কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতিসহ নয়জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পুলিশ তাদের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন জানিয়েছে আদালতে।
আজ শনিবার নববধূর শ্বশুর ইউনূস বাদি হয়ে দেবীদ্বার থানায় মামলা দায়ের করেন। দেবীদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুল আনোয়ার মামলার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ওসি জানান, আটক সাতজন এবং কুমিল্লার নিমসার কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ইসমাইল ও সহযোগী সাকিবকে আসামি করা হয় মামলায়। আটককৃতদের আজ আদালতে পাঠিয়ে তিন দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ।

শুক্রবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দেবীদ্বার উপজেলার সূর্যপুর গ্রামের জাকির ফরাজীর মেয়ে ফাতেমা আক্তারের (১৯) সঙ্গে একই উপজেলার সাহারপাড় গ্রামের মো. ইউনূসের ছেলে ছিদ্দিকুর রহমানের (২৫) বিয়ে-পরবর্তী বৌভাত অনুষ্ঠানে হামলার ঘটনা ঘটে।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, বুড়িচং নিমসার জুনাব আলী ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইসমাইল ও অপর ছাত্রলীগ নেতা সাকিব ২৫-৩০ জন বখাটে নিয়ে সাতটি মাইক্রোবাসে এসে বৌভাত অনুষ্ঠানে হামলা চালায়।  এ সময় তারা অনুষ্ঠানের লোকজনকে মারধর করে কনেকে তুলে নেয়ার চেষ্টা করে।

পরে এলাকাবাসী জানতে পেরে হামলাকারীদের ঘেরাও করলে ছাত্রলীগ নেতা ইসমাইল ও সাকিব পালিয়ে যান। স্থানীয় জনতা সাত হামলাকারীকে আটক করে  পুলিশে দেয়।

আটক ব্যক্তিরা জানান, নূরীতলা এলাকায় সাংগঠনিক মিটিং আছে জানিয়ে তাদের মাইক্রোবাসে করে নিয়ে যান ইসমাইল ও সাকিব। তাদের দাবি,  কনে ফাতেমা আক্তার নিমসার জুনাব আলী ডিগ্রি কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণিতে পড়ার সময় ইসমাইলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

(ঢাকাটাইমস/৯ফেব্রুয়ারি/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :