ধোনির কণ্ঠ নকল করে জালিয়াতি

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৪ মে ২০১৯, ১৫:৪৩

ভারতীয় ক্রিকেটার মহেন্দ্র সিং ধোনি কিংবা দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের নির্বাচক কমিটির প্রধান এমএসকে প্রসাদ। তিনি সবার গলা নকল করতে পারেন। যে কারও সঙ্গে কিছুদিন সময় কাটালে তাঁর গলার স্বর নকল করা শিখে নিতে পারেন তিনি। এটা তাঁর প্রতিভা বলতে পারেন। আবার তাঁর অস্ত্রও বলা যায়। কারণ সেটাকে কাজে লাগিয়েও বড়সড় জালিয়াতি করলেন বুদামারু নাগারাজু।

মহেন্দ্র সিং ধোনির নাম ব্যবহার করে এবং তাদের গলার স্বর নকল করে বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে অর্থ আত্মসাৎ করেছিলেন নাগারাজু। খুব বেশিদিন অবশ্য এমন দুষ্কর্ম চালিয়ে যেতে পারলেন না। ইতিমধ্যে বিজয়াওয়াড়া সিটি পুলিশ তাঁকে হেফাজতে নিয়েছে। আর্থিক জালিয়াতির অভিযোগ আনা হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। এছাড়া ঠকবাজির মামলাও করা হবে তাঁর বিরুদ্ধে।

অন্ধ্র প্রদেশের হয়ে রঞ্জি খেলেছেন নাগারাজু। ২৫ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার ২০১৪ সালেও অন্ধ্রের হয়ে রঞ্জি খেলেছেন। এছাড়া ২০১১ সালে সাউথ জোন এবং ২০১৩ সালে সেন্ট্রাল জোনের হয়েও খেলেছেন তিনি। তার থেকেও বড় কথা, টানা ৮২ ঘণ্টা নেটে ব্যাটিং করার গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডও রয়েছে নাগারাজুর। এমন একজন প্রতিভাবান ক্রিকেটার তিনি। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করার পরই মূলত বিলাসবহুল জীবনের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়েন নাগারাজু।

বিজয়ওয়াড়া পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, নাগারাজু ক্রিকেটার হিসাবে সফল হওয়ার পর বিভিন্ন ফার্ম থেকে স্পন্সরশিপ পেতে শুরু করেন। বিলাসবহুল জীবনযাপন শুরু করেন তার পর থেকে। গত বছর গোপাল নামক এক ব্যক্তির কাছ থেকে এমএস ধোনি ক্রিকেট অ্যাকাডেমি খোলার নাম করে বড় অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেন নাগারাজু। তারপর তাঁর নামে বিশাখাপত্তনমে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানায় গোপাল নামের সেই ব্যক্তি। ভারতীয় ক্রিকেট দলের নির্বাচক কমিটির প্রধান এমএসকে প্রসাদের নাম করেও লোক ঠকিয়েছেন নাগারাজু। সম্প্রতি প্রসাদের সঙ্গে কয়েকটি পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নাগারাজু। সেখান থেকেই তাঁর গলার স্বর নকল করা শিখে নেন তিনি। এর পর রামকৃষ্ণ হাউজিং প্রাইভেট লিমিটেডের কাছ থেকে ৩ লাখ ৮৮ হাজার ভারতীয় রুপি হাতিয়ে নেন। পুরোটাই করেছিলেন প্রসাদের নাম ও গলার স্বর ব্যবহার করে।

(ঢাকাটাইমস/৪ মে/এসইউএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত