মেসির সঙ্গে ফুটবল খেলে খুশি খুদে ভক্ত

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ জুলাই ২০১৯, ১০:৪০

সত্যিই স্বপ্নাতীত ঘটনা। এগারো বছরের ম্যাকেঞ্জি ওনিলের সঙ্গে যা ঘটল অ্যান্টিগার সমুদ্রতটে। লন্ডন থেকে পরিবারের সঙ্গে অ্যান্টিগায় ছুটি কাটাতে এসেছে ম্যাকেঞ্জি। আর পাঁচটা বাচ্চার মতো সমুদ্র সৈকতে ফুটবল নিয়ে খেলতে চলে এসেছিল সে। দূরে কয়েকজন একইভাবে মেতেছিল ফুটবল নিয়ে। সেই দলের মধ্যে থেকে একজন হঠাৎ বলটা ছুড়ে দেয় ম্যাকেঞ্জির দিকে। আর বলেন, ‘আমাদের সঙ্গে খেলবে এস।’

ম্যাকেঞ্জি বলটা নিয়ে কয়েক পা এগিয়ে গিয়ে স্তম্ভিত হয়ে যায়। কারণ, ওই ফুটবল খেলোয়াড়দের মধ্যে এক জন যে তার খুব চেনা। তিনি— লিওনেল মেসি! আর বলটা যিনি ছুড়ে দিয়েছিলেন, তাঁর নাম হর্হে মেসি, লিওর বাবা। ওই দলে আরও ছিল মেসির ছয় বছর বয়সী ছেলে থিয়াগো।

মেসির সঙ্গে তাঁর খুদে ভক্তের ফুটবল খেলার ভিডিও এর পরে ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। যার পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখেও পড়তে হয়েছে ওই খুদেকে। ম্যাকেঞ্জি বলেছে, ‘অবিশ্বাস্য লাগছিল মেসির সঙ্গে ফুটবল খেলতে। থিয়াগোও দারুণ ফুটবল খেলে। অত অল্প বয়সে ও রকম খেলা ভাবা যায় না। থিয়াগো আদৌ বিব্রত বোধ করছিল না আমার সঙ্গে খেলতে।’

ফুটবল খেলাতেই শেষ হয়ে যায়নি ম্যাকেঞ্জির স্বপ্নের কাহিনি। সে বলেছে, ‘মেসি আমাকে কাঁধে করে সমুদ্রেও নেমেছিল। থিয়াগো সব সময় আমার সঙ্গে ছিল।’ কীরকম লাগল মেসিকে? খুদে ভক্তের উপলব্ধি, ‘মেসিকে কিন্তু আর পাঁচ জন বাবার মতোই লেগেছে। আমার মনে হল, থিয়াগো যে অন্য বাচ্চার সঙ্গে ফুটবল খেলছে, এতে মেসি খুব খুশি হয়েছে।’ মেসির সঙ্গে কথাবার্তা কি বলা গিয়েছে? ম্যাকেঞ্জি জানিয়েছে, খুব বেশি বলা যায়নি ভাষা সমস্যার জন্য। তবে মেসির স্ত্রী আন্তোনেল্লা খানিকটা দোভাষীর কাজ করে দেওয়ায় বার্তা আদান প্রদান করা গিয়েছে। দিনের শেষে মেসি এবং আন্তোনেল্লা হাসিমুখে বিদায় জানান ম্যাকেঞ্জিকে। ‘কোনও দিন ওদের ভুলব না,’ বলেছে এগারো বছরের বালক। কে-ই বা ভুলতে পারে? 

(ঢাকাটাইমস/২৩ জুলাই/এসইউএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :