সমস্যার আবর্তে ব্রাহ্মণবাড়িয়া বক্ষব্যাধি হাসপাতাল

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯:২২

 

নিরাপত্তাসহ নানা সমস্যার আবর্তে পূর্বাঞ্চলের অন্যতম ব্রাহ্মণবাড়িয়া বক্ষব্যাধি হাসপাতাল। ২০ শয্যার এ হাসপাতালে আইসিইউর সুবিধা ও প্রয়োজনীয় জনবল না থাকায় মুমূর্ষু রোগীদের যথাযথ সেবা দেয়া যাচ্ছে না।

অভিযোগ রয়েছে, পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা না থাকায় রাতে হাসপাতাল চত্বরে নেশাগ্রস্তদের উৎপাত চলে। এতে আতঙ্কে থাকতে হয় ডাক্তার ও রোগীদের।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, প্রয়োজনীয় সেবা ও জনবলের ব্যবস্থা করলে জনস্বাস্থ্য রক্ষায় হাসপাতালটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবে। 

১৯৬৪ সালে শহরের মেড্ডায় প্রতিষ্ঠিত হয় বক্ষব্যাধি হাসপাতালটি। ১০৮ শতক জায়গার ওপর প্রতিষ্ঠিত ২০ শয্যার এই হাসপাতালে বর্তমানে ২ জন চিকিৎসক, ৪ জন নার্স ও ৩ জন ওয়ার্ড বয় কর্মরত। টিবি ছাড়াও অ্যাজমা রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হয় এখানে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছাড়াও পার্শ্ববর্তী নরসিংদী, হবিগঞ্জ, রায়পুরা ও মৌলভীবাজার থেকে রোগী আসে এই হাসপাতালে। অবস্থা গুরুতর না হলে রোগীরা সচরাচর এখানে চিকিৎসা নিতে আসে না। আবার অনেকেই প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়ার পর অসচেতনতার কারণে পরে আর চিকিৎসা নেন না। তাতে যক্ষার সংক্রমণের আশঙ্কা তৈরি হয়।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এই রোগ নিয়ে অনেকে লোকলজ্জায় ভোগেন। ফলে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসে না অনেকে। বর্তমানে ১০ জন রোগী রয়েছে হাসপাতালে।

যক্ষ্মার মতো গুরুতর সংক্রামক রোগ বিস্তার রোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখলেও জনবলের অভাবে ব্যাহত হচ্ছে এই হাসপাতালের কার্যক্রম। শূন্য রয়েছে একাধিক পদ।

হাসপাতালের নিজস্ব কোনো নিরাপত্তারক্ষী না থাকায় আতঙ্কে দিন কাটে চিকিৎসকসহ রোগীদের। সন্ধ্যা ঘনিয়ে এলে হাসপাতালের সীমানাপ্রাচীরের ভেতরে বসে বখাটে ও নেশাগ্রস্তদের আড্ডা। এ বিষয়ে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতালের মডিকেল অফিসার ডা. ফৌজিয়া জাফরিন জানান, গুরুতর রোগীদের নিয়ে অনেক সময় বিপাকে পড়তে হয়। আইসিইউ সুবিধা ও প্রয়োজনীয় জনবল না থাকায় মুমূর্ষু রোগীদের যথাযথ চিকিৎসাসেবা দেয়া যাচ্ছে না।

সেবার পরিধি বাড়ানোসহ চিকিৎসক ও রোগীদের প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থার দাবি জানান রোগী ও স্বজনরা।

(ঢাকাটাইমস/২২ফেব্রুয়ারি/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :