তাইওয়ানে চীনের মহড়া বিশ্বে খাদ্য সরবরাহে ঝুঁকি তৈরি করবে, বাড়বে মুদ্রাস্ফীতি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৫ আগস্ট ২০২২, ১১:০০

তাইওয়ানের জলসীমার চারিদিকে চীনের সামরিক মহড়ার কারণে পূর্ব এশিয়ায় বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত বাণিজ্যিক জলসীমায় পণ্য পরিবহন বাধাগ্রস্ত হওয়ার ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। বাণিজ্যিক জাহাজগুলোকে বাধ্য হয়ে তাইওয়ানের জলসীমার পরিবর্তে অন্য রুটে পণ্য পরিবহন করতে হচ্ছে। ফলে বিশ্বে স্বাভাবিক খাদ্য সরবরাহ বাধাগ্রস্তের পাশাপাশি মুদ্রাস্ফীতি কয়েক গুণ বৃদ্ধি পেতে পারে।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) চীনের নৌবাহিনী, বিমানবাহিনী এবং অন্যান্য সামরিক বাহিনী যৌথভাবে তাইওয়ানের ছয়টি অঞ্চলের জলসীমা এবং আকাশসীমায় সামরিক মহড়া শুরু করে। আগামী চারদিন এ সামরিক মহড়া চলবে। মহড়া চলাকালীন ওই অঞ্চলগুলো এড়িয়ে চলার জন্য সব জাহাজ এবং বিমানকে সতর্ক করা হয়েছে।

গত মঙ্গলবার (২ আগস্ট) রাতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি তাইওয়ানে পৌঁছান। এর আগে তাইওয়ানে সফর থেকে বিরত থাকতে ন্যান্সিকে বহনকারী বিমানে হামলাসহ কঠোর পরিণতি ভোগের হুঁশিয়ারি দিয়েছিল চীন। কিন্তু চীনের হুঁশিয়ারি অগ্রাহ্য করে তাইওয়ান সফর করেন ন্যান্সি পেলোসি।

তাইওয়ানে ন্যান্সির অবস্থানের সময় চীন সামরিক মহড়া থেকে বিরত থাকলেও, ন্যান্সি তাইওয়ান ছেড়ে চলে যাওয়ার পরেই সামরিক মহড়া শুরু করে চীন।

অন্যদিকে, তাইওয়ানের মতে, চীনের সামরিক মহড়া তাদের নৌপথ এবং আকাশপথ বন্ধের সমতুল্য। এ সামরিক মহড়ার মাধ্যমে তাইওয়ানের জলসীমার অধিকার লঙ্ঘন করেছে চীন।

১১০ মাইলব্যাপী তাইওয়ান দ্বীপটি তাইওয়ান এবং এশিয়া মহাদেশের ভূখণ্ডের মধ্যে অবস্থিত। এই সরু জলসীমা দিয়ে উত্তরপূর্ব এশিয়ার দেশ যেমন চীন, জাপান, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে বিশ্বের অন্যান্য দেশের অধিকাংশ পণ্য পরিবহন করা হয়।

লন্ডন ভিত্তিক শিপিং পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ভেসেলভ্যালু জানায়, বর্তমানে তাইওয়ানের জলসীমায় ২৫৬টি কনটেইনারবাহী জাহাজ এবং অন্যান্য জলযান রয়েছে। সামরিক মহড়া চলাকালীন বৃহস্পতিবার থেকে রবিবার পর্যন্ত প্রায় ৬০টি অতিরিক্ত কনটেইনারবাহী জাহাজ ওই জলসীমায় পৌঁছাবে।

ভেসেলভ্যালুর বাণিজ্যিক বিশেষজ্ঞ পিটার উইলিয়ামস মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে বলেন, ‘‘সামরিক মহড়ার কারণে ওই অঞ্চলে স্বাভাবিক খাদ্য পরিবহন ব্যবস্থা বাধাগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’’

ইকোনোমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের লিড বিশ্লেষক নিক ম্যারো সিএনএনকে বলেন, সামরিকভাবে তাইওয়ানের জলসীমায় বাণিজ্যিক পণ্য পরিবহন ব্যবস্থা বাধাগ্রস্ত হলেও এটি নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন তৈরি হয়েছে। কারণ চীন ভবিষ্যতে একই সামরিক মহড়া শুরু করতে পারে কিনা এবং বাণিজ্য, ভ্রমণ এবং অর্থনৈতিক গতিপথ পরিবর্তনের পাশাপাশি সম্ভাব্য আঞ্চলিক প্রতিরক্ষার ক্ষেত্রে কী হবে তা নিয়ে আলোচনার প্রয়োজন রয়েছে।’

চীনের সামরিক মহড়ার কারণে সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে এখনই নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। তবে পণ্য পরিবহন দেরি হওয়ার কারণে অনেক পণ্যের অর্ডার বাতিল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আর সমুদ্রে অতিরিক্ত সময়ের জন্য শ্রমিকদের মজুরির পাশাপাশি জাহাজের খরচও বৃদ্ধি পাবে।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেন-রাশিয়ার সামরিক যুদ্ধ ও করোনা মহামারীর কারণে বিশ্বে খাদ্য সরবরাহ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। একারণে বহু দেশে মুদ্রাস্ফীতি কয়েকগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে।

একইভাবে চীন-তাইওয়ানের মধ্যে সংঘর্ষের সৃষ্টি হলে বিশ্বে কম্পিউটার চীপের সরবরাহে সংকট তৈরি হবে। কারণ তাইওয়ান বিশ্বের অন্যতম চীপ উৎপাদনকারী দেশ। আর সব আধুনিক ইলেকট্রিক যন্ত্রের ক্ষেত্রে চীপ অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান।

বিশ্বের শিপিং কাউন্সিলের মতে, তাইওয়ানে সাতটি প্রধান সমুদ্র বন্দর রয়েছে। দেশটির দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চল উপকূলে অবস্থিত কাওশিউং বন্দরটি তাইওয়ানের সবচেয়ে পোতাশ্রয় (হার্বার) আর বিশ্বের ১৫তম পণ্য খালাসকারী বন্দর।

গত বুধবার তাইওয়ানের মেরিটাইম এবং বন্দর ব্যুরো তিনটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। বিজ্ঞপ্তিতে তাইপেসহ অন্যান্য শহর এড়িয়ে বিকল্প পথে যাতায়াতের জন্য সব জলযানকে বলা হয়েছে।

এছাড়া, তাইওয়ান বাধ্য হয়ে জাপান এবং ফিলিপাইনের সঙ্গে আলাপের মাধ্যমে ১৮টি ভিন্ন আন্তর্জাতিক ফ্লাইট ব্যবহার করছে। একারণে চারিদিনে প্রায় ৩০০টি আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের উপর প্রভাব পড়বে।

অস্ট্রেলিয়ার ব্রোকারেজ ফার্মের প্রধান অর্থনীতিবিদ ক্লিফোর্ড বেনের্ট বলেন, এ সামরিক মহড়ার মাধ্যমেই চীনের ক্ষোভ প্রশমন হবে না। ন্যান্সি পেলোসির সফরের কারণে উভয় দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক সম্পর্কে মারাত্মক প্রভাব পড়তে পারে।

ইতোমধ্যে, ন্যান্সির সফরের প্রতিক্রিয়ায় তাইওয়ান থেকে ফল এবং মাছ আমদানি বন্ধ এবং প্রাকৃতিক বালু রপ্তানি বন্ধ করেছে চীন।

ফলে ক্লিফোরর্ড বেনেটের মতে, তাইওয়ানসহ যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গেও আগামী কয়েক মাস, কয়েক বছর ধরে সম্পর্কের অবনতি ঘটতে পারে।

(ঢাকাটাইমস/০৫আগস্ট/আরআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ

করোনার পর বাদুড় থেকে ছড়াচ্ছে নতুন এক ভাইরাস

ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর সদস্যদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জেলেনস্কির

ইরানে অন্তত ৬০ নারীসহ সাত শতাধিক বিক্ষোভকারী আটক

সশস্ত্র গোষ্ঠীর হামলায় নাইজেরিয়ায় মসজিদে নিহত ১৫

রিজার্ভ সৈন্য তলবের প্রতিবাদে বিক্ষোভে শত শত রুশ নাগরিক গ্রেপ্তার, উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী বরখাস্ত

শাসন করায় শিক্ষককে ছাত্রের তিন রাউন্ড গুলি!

বিশ্বজুড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় কমেছে মৃত্যু

পুতিন ইউক্রেনে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করলে পরিণতি কী

কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচনের মনোনয়নপত্র নিলেন শশী থারুর

পরমাণু অস্ত্র নিয়ে মোটেও ধাপ্পাবাজি করছেন না পুতিন: ইইউ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :