কলের পানিতে মস্তিষ্কখেকো অ্যামিবা, যুক্তরাষ্ট্রের আট শহরে সতর্কতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:২৩

করোনাভাইরাসের বিধ্বস্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এর মধ্যে এবার কলের পানিতে মস্তিষ্কখেকো অ্যামিবা বা অণুজীবের সন্ধান মিলেছে। এর জেরে দেশটির আটটি শহরে দুর্যোগের ঘোষণা দিয়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। সরবরাহকৃত পানি ব্যবহার না করার নির্দেশ দিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। খবর সিএনএনের।

খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের কলের পানিতে এক প্রকার বিরল অণুজীবের সন্ধান পাওয়া যায়। এককোষী এই প্রাণী মানুষের শরীরে প্রবেশ করতে পারলে মস্তিষ্কের ব্যাপক ক্ষতি করে দিতে পারে। লেক জ্যাকশন, ফ্রিপোর্ট, এনগ্লিটন, ব্রাজোরিয়া, রিচউড, ওস্টার ক্রেক, ক্লুট, রোজেনবার্গ শহরেও পৌরসভার সরবরাহ করা পানিতে মস্তিষ্কখেকো অণুজীবের উপস্থিতি পাওয়া গিয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, এই অণুজীব বা অ্যামিবা সাধারণত মানুষের নাক দিয়ে পানির মাধ্যমে প্রবেশ করে। তারপর মস্তিষ্কের ব্যাপক ক্ষতি করে। নায়েগ্লেরিয়া ফাওলেরি নামক এই অনুজীবের সংক্রমণে এর আগে যুক্তরাষ্ট্রে অনেকে প্রাণ হারিয়েছেন। ২০০৯ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত মোট ৩৪ জন এই অণুজীবের সংক্রমণে মারা গিয়েছেন।

আপাতত আটটি শহরের বাসিন্দাদের টয়লেটের ফ্ল্যাশ ছাড়া আর কোনো কাজে কলের পানি ব্যবহার করতে বারণ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে পানি নিরাপদ করতে ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন। তবে কতদিনে এসব শহরের পানি সম্পূর্ণ নিরাপদ করা যাবে তা এখনই জানাতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, ১৯৬০ সালে অস্ট্রেলিয়ার একটি হ্রদের পানিতে প্রথম নাইজেলরিয়া ফ্লাওয়ারি নামক এই মস্তিষ্কখেকো অণুজীবের সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল। দ্রুত কোষ বিভাজন করতে পারে এই অণুজীব। হট ওয়াটার লেক বা উষ্ণ জলের আধারে এই অণুজীব থাকে বেশি।

শিল্পাঞ্চলের কাছাকাছি এলাকার দূষিত পানি, দীর্ঘদিন ধরে পরিষ্কার না হওয়া সুইমিংপুল বা ক্লোরিনেটেড নয় এমন জায়গাতে দ্রুত ছড়ায় এই অনুজীব। এককোষী হলেও মানুষের স্নায়ুকোষের ব্যাপক ক্ষতি করতে পারে এই অণুজীব।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই অনুজীব থাকা পানি পান করলে ততটা মারাত্মক প্রভাব পড়ে না। কিন্তু পানি নাক দিয়ে প্রবেশ করলে মহাবিপদ হতে পারে। অনেক সময় দেখা গিয়েছে, অ্যামিবা শরীরে হানা দেওয়ার পর কোনো মানুষ এক সপ্তাহের মধ্যে মারাও গিয়েছেন।

ঢাকা টাইমস/২৮সেপ্টেম্বর/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :