টেক্সাসে স্ত্রীকে হত্যা করে ভারতীয়র আত্মহত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২১:২৪ | প্রকাশিত : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:৩০

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের একটি শহরতলির অ্যাপার্টমেন্ট থেকে ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন এক দম্পতির মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, ওই দম্পতির নাম শ্রীনিবাস নাকিরেকান্তি ও শান্তি নাকিরেকান্তি। ৫১ বছর বয়সি শ্রীনিবাস গুলি করে খুন করেন তার স্ত্রী শান্তিকে। তারপর আত্মঘাতী হন শ্রীনিবাস। টেক্সাসে একটি শক্তি সংস্থার কর্মকর্তা ছিলেন শ্রীনিবাস। শান্তি ছিলেন কম্পিউটার প্রোগ্রামার। দু’জনেই ছিলেন মার্কিন নাগরিক। ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে এই দম্পতি আমেরিকায় গিয়েছিলেন।

আনন্দবাজার জানায়, সুগার ল্যান্ড শহরতলির পেন্ডারগ্রাসে যে অ্যাপার্টমেন্টে থাকতেন শান্তি ও শ্রীনিবাস, সেখান থেকে গুলির শব্দ শুনে প্রতিবেশীরা সোমবার ভোরে পুলিশে খবর দেন। সেখানে গিয়ে শান্তি ও শ্রীনিবাসের দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। শান্তির মাথায় বুলেটের ক্ষত মিলেছে। অ্যাপার্টমেন্টের ড্রাইভওয়েতে পড়ে থাকতে দেখা যায় শান্তির দেহ। অ্যাপার্টমেন্টের বেডরুম থেকে উদ্ধার করা হয় শ্রীনিবাসের দেহ। তার বুকে গুলির ক্ষত পাওয়া গেছে। তার দেহের কাছেই পড়ে থাকতে দেখা গেছে একটি হ্যান্ড গান।

প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশ নিশ্চিত, স্ত্রী শান্তিকে খুন করেই আত্মঘাতী হয়েছেন শ্রীনিবাস। ঘটনার সময় শান্তি ও শ্রীনিবাসের ১৬ বছর বয়সি মেয়ে ঘুমাচ্ছিলেন তার বেডরুমে। প্রতিবেশীদের ফোন পেয়ে পুলিশ ওই অ্যাপার্টমেন্টে পৌঁছে কলিং বেল বাজালে দরজা খুলে দেন শান্তি-শ্রীনিবাসের মেয়ে।

দরজা খুলেই তিনি পুলিশকে বলেন, ‘বাবা ওর ঘরের দরজা খুলছেন না সকাল থেকে।’ শান্তি-শ্রীনিবাসের একটি ছেলেও রয়েছে। তার বয়স ২১ বছর। তিনি পড়েন টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ে।

সুগার ল্যান্ড সিটি পুলিশের তরফ থেকে এক প্রেস বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘প্রাথমিক তদন্তে মনে হচ্ছে এটা খুন ও আত্মহত্যার ঘটনা। তবে আরও তদন্ত হচ্ছে।’

ঘটনার আগের দিন শ্রীনিবাসের পাঠানো একটি ইমেইল তার বন্ধুরা পুলিশকে দেখিয়েছেন। সেটিও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

(ঢাকাটাইমস/১৯ফেব্রুয়ারি/এসআই)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :